বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ৩ গোলে উড়ে গেছে বার্সা

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:২১ পূর্বাহ্ণ, ১৫/০৯/২০২১

বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ধরাশায়ী স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনা। তাও কি না এবার নিজেদের ঘরের মাঠে। বায়ার্নের পক্ষে জোড়া গোল করেছেন রবার্ট লেভান্দোভস্কি।

মেসি পরবর্তী যুগে ইউরোপ সেরার মঞ্চে বার্সেলোনার প্রথম ম্যাচ। আর্থিক সমস্যার কারণে নিজেদের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় তারকাকে ধরে রাখতে পারেনি স্প্যানিশ দলটি। অন্য ক্লাবে ধারে খেলতে পাঠাতে হয়েছে আঁতোয়া গ্রিজমানকে। চোটের সমস্যা দিন দিন আরও বড় হচ্ছে। তার পরেও নামের সঙ্গে যেন সুবিচার করতে পারলো না লা লিগার জায়ান্টরা।

বল দখলে দুই দলের মাঝে খুব একটা পার্থক্য নেই। তবে আক্রমণে কিছুই করতে পারেনি বার্সেলোনা। গোলের উদ্দেশে তারা পাঁচটি শট নিলেও তার কোনোটিই ছিল না লক্ষ্যে। বিপরীতে একচেটিয়া আধিপত্য করা বায়ার্নের ১৭ শটের সাতটি ছিল লক্ষ্যে।

বায়ার্নের বিপক্ষে তাদের হতাশার রেকর্ড আরও বাজে হলো। এই নিয়ে জার্মান ক্লাবটির বিপক্ষে অষ্টমবার হারল তারা; ১২ ম্যাচে বায়ার্ন জিতেছে ৮বার, বার্সেলোনা ২বার, বাকি দুটি ড্র।

স্বাগতিক দল বার্সেলোনা হলেও, পুরো ম্যাচজুড়ে একচ্ছত্র আধিপত্য ছিলো বায়ার্নের। সারা ম্যাচে মাত্র ৫টি শট নিতে পেরেছে বার্সেলোনা, একটিও ছিলো না লক্ষ্যে। অন্যদিকে ১৭টি শট নিয়ে ৭টিই লক্ষ্যে রাখে বায়ার্ন। যার তিনটিতে মেলে গোল।

ম্যাচের ৩৪ মিনিটের সময় প্রথম গোলটি করেন থমাস মুলার। ডি-বক্সের বাইরে থেকে শট নেন মুলার। বার্সা ডিফেন্ডার এরিক গার্সিয়ার গায়ে লেগে দিক পাল্টে বল চলে যায় জালে, কিছুই করার ছিলো টের স্টেগানের। এর ১৫ মিনিট আগে লেরয় সানের একটি শট, একইভাবে জালে জড়ানোর মুখে দারুণ ক্ষিপ্রতায় ঠেকিয়ে দিয়েছিল বার্সা গোলরক্ষক।

Nagad

এক গোলের লিড নিয়ে বিরতিতে যাওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে আরও দুইবার গোলোৎসব করে নিগ্যালসম্যানের শিষ্যরা। দুইবারই গোলদাতা বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকার রবার্ট লেওয়ানডস্কি। তিনি নিজের প্রথম ও ম্যাচের দ্বিতীয় গোল করেন ৫৬ মিনিটে। আর শেষ গোলটি আসে ৮৫ মিনিটের সময়।

ই গ্রুপের অন্য ম্যাচে গোলশূন্য ড্র করেছে বেনফিকা ও ডায়নামো কিয়েভ। যার ফলে প্রথম ম্যাচের পর শূন্য পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চার নম্বরে অবস্থান করছে রোনাল্ড কোম্যানের শিষ্যরা। তাদের পরের ম্যাচে ৩০ সেপ্টেম্বর, বেনফিকার বিপক্ষে।