শরীরে আয়রনের ঘাটতি হলে যেসব সমস্যা হতে পারে

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ৭:৪১ অপরাহ্ণ, ১২/০৯/২০২১

আয়রন এক ধরণের খনিজ। যা মানবদেহের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আয়রন শরীরকে শক্তিশালী করে। শরীরে আয়রনের ঘাটতি থাকলে বিভিন্ন ধরণের রোগ হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। এগুলি ছাড়াও দেহের লাল কোষ কমতে শুরু করে।

হিমোগ্লোবিন বাড়ানোর জন্য আয়রন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। হিমোগ্লোবিন একটি প্রোটিন হিসাবে কাজ করে। যা সারা শরীর জুড়ে অক্সিজেন সরবরাহ করতে কাজ করে। এ কারণেই আয়রনের ঘাটতি শরীরের অনেক ক্ষতি করে। আয়রনের ঘাটতিও ঠিকমতো না খাওয়ার ফলে ঘটে।

এ ছাড়া গর্ভাবস্থায় মহিলাদের আয়রনের ঘাটতি থাকে। মাসিকের সময় অতিরিক্ত রক্তপাতের কারণে আয়রণের ঘাটতি দেখা দেয়। আয়রনের ঘাটতির কারণে কিছু লক্ষণও দেখা যায় যেমন- ক্লান্তি, চুল পড়া, নখ ভাঙ্গা ইত্যাদি। আসুন আজ এই নিবন্ধে শরীরে আয়রনের ঘাটতির সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে নিই ।

আয়রনের ঘাটতি হলে কী কী সমস্যা দেখা দিতে পারে?

১. শরীরে আয়রনের মাত্রা কমে গেলে অ্যানিমিয়ার মতো সমস্যা দেখা দেয়। বিশেষ করে মহিলাদের মধ্যে এই সমস্যা দেখা দিতে পারে। অ্যানিমিয়া হলে ক্লান্তি, কাজ করার শক্তি চলে যাওয়া, শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে না থাকার মতো সমস্যা দেখা দেয়। এই সময়ে রোজকার তালিকায় আয়রন সম্পন্ন খাবার রাখার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

২. অ্যানিমিয়ার অর্থ রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা কমে যাওয়া। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, রক্তে হিমোগ্লোবিন কমে গেলে সারাদিন ক্লান্তি, দুর্বলতা, কাজ করতে ইচ্ছে না হওয়ার মতো সমস্যা দেখা দেয়।

Nagad

৩. অন্তঃসত্ত্বা কোনও মহিলার শরীরে যদি আয়রনের ঘাটতি দেখা দেয়, তাহলে অনেক রকমের সমস্যা দেখা দিতে পারে। সন্তানের সমস্যা দেখা দিতে পারে। এমনকি প্রিম্যাচিওর বার্থও হতে পারে সন্তানের।

৪. আয়রনের ঘাটতির প্রভাব ত্বকে এবং চুলেও পড়ে। ত্বক শুষ্ক, নিষ্প্রাণ এবং ফ্যাকাসে হয়ে যায়। চুল পড়া, খুসকির সমস্যাও দেখা দেয় আয়রনের ঘাটতির কারণে।

আয়রনের ঘাটতির প্রতিকার কী?

১. আয়রনের ঘাটতি নিরাময়ের জন্য, চিকিৎসক পরীক্ষা করে এর কারণ খুঁজে বের করেন, যাতে চিকিৎসা শুরু করতে পারে। কিছু ক্ষেত্রে আয়রনের ঘাটতি লোহা থেরাপির মাধ্যমে চিকিৎসা করা হয়।

২. আয়রনের ঘাটতি কাটিয়ে উঠতে লোহা সমৃদ্ধ ফলের রস খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়।
চিকিৎসক লোহার পরিপূরক দিলে সেটি খাবারের সাথে সেটি খাওয়া উচিত।

৩. শরীরে রক্তক্ষরণের কারণে যদি রক্তাল্পতা হয় তাহলে শরীরে রক্ত ও অক্সিজেন দেওয়া হয়।

কিভাবে আয়রনের ঘাটতি রোধ করবেন?

১. আয়রনের ঘাটতি রোধ করার সহজ উপায় হল আয়রন সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া।

২. ছোট বাচ্চাদের এক বছরের না হওয়া পর্যন্ত গরুর দুধ পান করা উচিত নয়।

আয়রন সমৃদ্ধ খাবার: সবুজ সবজির মধ্যে লাউ, কুমড়োর বীজ, ক্যাপসিকাম, সবুজ শাকসবজী, পালং শাক, সিদ্ধ আলু, মটরশুটি তে আয়রন অন্তর্ভুক্ত। অন্যান্য শুকনো ফল ইত্যাদিতে লোহা থাকে। আমিষের মধ্যে সীফুড, ডিম, মিট, মুরগি ইত্যাদিতে প্রচুর আয়রন থাকে

 

সারাদিন/১২সেপ্টেম্বর/এএইচ