নৌযান ডুবি ২৬ মৃত্যু : গ্রেপ্তার স্পিডবোটের মালিক

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১:৫০ অপরাহ্ণ, ০৯/০৫/২০২১

মাদারীপুরের শিবচরে স্পিডবোট-বাল্কহেড সংঘর্ষে ২৬ জনের প্রাণহানির ঘটনায় হওয়া মামলায় সেই স্পিডবোটটির মালিক চান মিয়া ওরফে চান্দুকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

গত সোমবারের (৩ মে) ওই ঘটনায় ২৬ জন নিহত হয়। ওই ঘটনায় করা মামলার এজাহারনামীয় আসামি স্পিডবোটের মালিক চান মিয়া ওরফে চান্দুকে গতকাল শনিবার দিবাগত মধ্যরাতে ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

রোববার (৯মে) দুপুরে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং-এর পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

খন্দকার আল মঈন বলেন, সম্প্রতি স্পিডবোট দুর্ঘটনায় ২৬ জনের মৃত্যু হয়। এতে সারাদেশে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। এরপর র‌্যাব অভিযান শুরু করে মামলার এজহারনামীয় আসামি স্পিডবোট মালিক চান মিয়া ওরফে চান্দুকে কেরানীগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ ব্যাপারে আজ বিকেলে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে বলেও জানান র‌্যাবের মিডিয়াপ্রধান।

গত ৩ মে বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌপথের কাঁঠালবাড়ী ঘাট এলাকায় দাঁড়িয়ে থাকা বাল্কহেডে ধাক্কা দিয়ে উল্টে যায় যাত্রীবোঝাই একটি স্পিডবোট। সেখান থেকে একে একে উদ্ধার করা হয় শিশুসহ ২৫ জনের মরদেহ। হাসপাতালে নেওয়ার পর মারা যান আরো একজন। জীবিত উদ্ধার করা হয় পাঁচজনকে।

Nagad

ঘটনার দিন রাতেই স্পিডবোটটির মালিক-চালকসহ চারজনের নামে মামলা হয়। আসামিদের মধ্যে ঘাটের ইজারাদারও রয়েছেন। ঘটনা তদন্ত করতে মাদারীপুর জেলা প্রশাসনের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক আজহারুল ইসলামকে প্রধান করে ছয় সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়।