নরসিংদীর শিবপুরে তুচ্ছ ঘটনায় চেয়ারম্যানের নির্দেশে হামলা ভাংচুর

নরসিংদী প্রতিনিধি :নরসিংদী প্রতিনিধি :
প্রকাশিত: ৩:৫৯ অপরাহ্ণ, ০৫/০৫/২০২১

নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার পুটিয়া ইউনিয়নের সৈয়দনগর গ্রামে তুচ্ছ ঘটনায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে চেয়ারম্যানের নির্দেশে হামলা ভাংচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

হামলার সময় বসত বাড়ীতে ভাংচুরসহ একটি মোটরসাইকেল জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ সময় এক নারীসহ এতে উভয় পক্ষের অন্তত ৬ জন আহত হয়েছে।

এই ঘটনায় উপজেলার পুঠিয়া ইউপি চেয়ারম্যান খন্দকার হাসানুল হক সানি এলিছ (৪৫) সহ ১০ জনের নাম উল্লেখ করে ২০/২৫ জনকে অজ্ঞাত রেখে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন একই গ্রামের মৃত আজহার হোসের ছেলে মকবুল হোসেন ভূঁইয়া (৫৮)।

ঘঠনার শিকার মকবুল হোসেন জানান, আমার সাথে পূর্ব হইতেই বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলিয়া আসিতেছে চেয়ারম্যান গং দের সাথে। গতকাল মঙ্গলবার ৪ মে বিকেলে আসরের নামাজ পড়ে বাড়ীতে ৷ আসার পথে চেয়ারম্যানের সাথে কথা কাটাকাটি হয় আমার।

পরে সাড়ে ৫ টার দিকে বিবাদীগণ গং দেশীয় দা, লাঠি, ছোরা, চাপাতি, লোহার ও লোহার রড ইত্যাদি অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আমার বসতবাড়িতে অনধিকার প্রবেশ করিয়া অকথ্য ভাষায় গালাগালি দিতে থাকে। আমি তাদের গালাগালির কারণ জানতে চাইলে চেয়ারম্যান এর নির্দেশে এলোপাথাড়ি ভাবে মারপিট করতে থাকে।

তিনি আরও বলেন, আমার স্ত্রী রিনা বেগম(৪৫) মেয়ে আফরোজা বেগম (২২) ছেলে রাজিব (২৮) শরীফ (১৮),রবিন (৩৩) আগাইয়া আসলে তাদেরকে ও মারপিট করে শরীরের বিভিন্ন স্থানে নীলা ফুলা জখম করে।

Nagad

এসময় আমার মেয়ের গলায় থাকা এক ভরি ওজনের স্বর্ণের চেইন যার মূল্য ৭০ হাজার টাকা নিয়ে যায়। আমার স্ত্রীর চুলের মুঠি ধরে টানা হেচড়া করে শ্লীলতাহানী ঘটায়। বাড়ির বেড়াসহ গেইট ভাঙচুর করিয়া আনুমানিক এক লক্ষ টাকার ক্ষতি করে। ঘরে থাকা জমি বিক্রির নগদ ২ লাখ ৩৫ হাজার টাকা নিয়ে গেছে। চলে যাওয়ার সময় খুন করে লাশ গুম করার হুমকি প্রদান করে।

তারা যাওয়ার সময় সৈয়দনগর বাসস্ট্যান্ড থাকা মটর সাইকেল আগুনে পুড়িয়া ১ লক্ষ ৫৫ হাজার টাকার ক্ষতি করে। এ বিষয়ে আমি বাদী হয়ে শিবপুর মডেল থানার অভিযোগ দিয়েছি।

এ বিষয়ে পুঠিয়া ইউপি চেয়ারম্যান খন্দকার হাসানুল হক সানি এলিছ জানান, আমার ভাতিজাকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখে আমার মাথা ঠিক ছিল না তখন। কে বা কাহারা মকবুলের বাড়ীতে ও মোটরসাইকেলে আগুন দিয়েছে আমার জানা নাই।