রাবিতে শিক্ষক-ছাত্রলীগের ধাক্কাধাক্কি

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ২:৪৫ অপরাহ্ণ, ০৪/০৫/২০২১

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষক ও চাকরিপ্রত্যাশী ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে পূর্ব নির্ধারিত সিন্ডিকেট সভা স্থগিত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার (৪ মে) ১০টার দিকে ভিসির বাসভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় রেজিস্ট্রার সিন্ডিকেট সভা স্থগিতের ঘোষণা দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক আব্দুস সালাম।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, আগামী বৃহস্পতিবার (৬ মে) মেয়াদ শেষ হচ্ছে বর্তমান উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান এর। মঙ্গলবার সকালে একটি সিন্ডিকেট সভার আহ্বান করা হয়। সভায় অবৈধভাবে নিয়োগ দেওয়া হবে এই আশঙ্কায় আগে থেকে সভা বন্ধের দাবিতে ভিসির বাসভবনের সামনে অবস্থানের ঘোষণা দেয় প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের ‘দুর্নীতি বিরোধী শিক্ষকবৃন্দ।

এদিকে সকাল ৮টা থেকে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান নেন চাকরিপ্রত্যাশী ছাত্রলীগ নেতাকর্মী ও স্থানীয়রা। একপর্যায়ে সেখানে উপস্থিত হন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের দুর্নীতি বিরোধী শিক্ষক গ্রুপ। শিক্ষকরা উপাচার্যের বাসভবনে সাক্ষাতের জন্য যেতে চাইলে চাকরিপ্রত্যাশীদের বাধার মখে পড়েন। পরে সেখানে দুই পক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে।

দুর্নীতি বিরোধী শিক্ষকের একজন বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. শফিকুন্নবী সামাদী বলেন, আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করার জন্য বাসভবনের প্রবেশ করতে গিয়ে চাকুরিপ্রত্যাশীদের বাধার সম্মুখীন হই।

একজন বলেন, উপাচার্যের প্ররোচনায় হয়েছে। যদি এখানে শিক্ষকরা কোনো দুর্ঘটনার শিকার হন তাহলে সে দায় উপাচার্যকেই নিতে হবে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান শিক্ষকদের অসযোগিতা করে চাকরিপ্রত্যাশীদের সহযোগিতা করেছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি।

Nagad

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান অসহযোগিতার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, আমি ক্যাম্পাসের শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় সর্বোচ্চ ভূমিকা পালন করার চেষ্টা করেছি।