দেশ ছেড়েছেন বসুন্ধরা এমডির স্ত্রী-সন্তানরা

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ, ৩০/০৪/২০২১

বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীর ও তার স্ত্রী

কলেজছাত্রী মোসারাত জাহান মুনিয়ার আত্মহত্যায় প্ররোচনা মামলার একমাত্র আসামি বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীরের স্ত্রী-সন্তান ও পরিবারের সদস্যরা দেশ ছেড়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) বিকেলে তাদের বহনকারী একটি বিশেষ ফ্লাইট দুবাইয়ের উদ্দেশে রওনা দেয়। বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ ও অভিবাসন পুলিশ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানন্দরে দায়িত্বরত এপিবিএনের একজন কর্মকর্তা বলেন, ভাড়া করা ওই উড়োজাহাজটির ফ্লাইট নম্বর ভিপিসি১১। রাত ৯টার কিছুক্ষণ আগে সেটি ঢাকা ত্যাগ করে।

বিমানের গতিপথ নির্দেশক ওয়েবসাইট ফ্লাইটঅ্যাওয়ারে দেখা যায়, ঢাকা শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে রাত ৮টা ৫৬ মিনিটে রওনা হয় ফ্লাইটটি। বাংলাদেশ সময় রাত ২টা ৮ মিনিটে এটি দুবাইয়ের আল মাকতুম বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

বিমানবন্দর ইমিগ্রেশনের একজন কর্মকর্তা বলেন, ওই বিশেষ ফ্লাইটে যাত্রী মোট আটজন। তাদের মধ্যে সায়েম সোবহান আনভীরের স্ত্রী সাবরিনা সোবহান, তাদের দুই সন্তান, ছোট ভাই সাফওয়ান সোবহানের স্ত্রী ইয়াশা সোবহান ও তার মেয়ে এবং দুই পরিবারের তিনজন গৃহকর্মী রয়েছেন।

এদিকে ২৬ এপ্রিল গুলশানের একটি ভাড়া বাসা থেকে মুনিয়ার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে পুলিশ এসে তাকে নামায় ও বিছানায় শুইয়ে দেয়। বড় ধরনের বিপদ ঘটতে পারে বলে মোসারাত তার পরিবারকে জানিয়েছিলেন। এই ঘটনায় ওই রাতেই মুনিয়ার বোন নুসরাত জাহান বাদী হয়ে বসুন্ধরার ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীরকে আসামি করে আত্মহত্যায় প্ররোচণার মামলা করেন।

Nagad

এ ঘটনায় মামলা হওয়ার পরদিন পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সায়েম সোবহান আনভীরের বিদেশ যাত্রায় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন আদালত। আনভীরের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দিলেও তার আগেই তিনি দেশ ছেড়েছেন বলে গুঞ্জন ছড়ায়। এর মধ্যেই বুধবার তার পক্ষে হাই কোর্টে আগাম জামিনের একটি আবেদন জমা পড়ে। তবে বৃহস্পতিবার সেই আবেদনের শুনানি করেনি আদালত।

উল্লেখ্য আনভীরের আগে বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ছিলেন তার ভাই সাফিয়াত সোবহান সানবীর। বসুন্ধরা কমিউনিকেশন্সের পরিচালক হুমায়ুন কবীর সাব্বির হত্যাকাণ্ডের পর ২০০৬ সালে সানবীর দেশ ছেড়েছিলেন। তারপর এমডির দায়িত্বে আসেন আনভীর।

২০১১ সালে সাব্বির হত্যামামলায় খালাস পাওয়া সানবীর পরে দেশে ফিরলেও এমডি পদে আর তাকে ফেরাননি তাদের বাবা বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমদ আকবর সোবহান (শাহ আলম)।