স্ত্রীর সাথে পূর্ব শত্রুতার জেরে ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা

সাভার প্রতিনিধি:সাভার প্রতিনিধি:
প্রকাশিত: ৪:৩২ পূর্বাহ্ণ, ২৪/০৪/২০২১

আশুলিয়ায় স্ত্রীর সাথে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পলাশ মিয়া (৩২) নামের এক ব্যবাসীয়কে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা
অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই ব্যবসায়ীর স্ত্রী শাহনাজ পারভিন শোভা বাদি হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে আশুলিয়ার ভাদাইল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

হামলার শিকার পলাশ মিয়া (৩২) বগুড়া জেলার সারিয়াকান্দি থানার কড়িতলা গ্রামের নজির মন্ডলের ছেলে। তিনি ভাদাইল এলাকায় পলাশ স্টোর নামের একটি মুদি দোকানের মালিক।তার স্ত্রী শাহনাজ পারভিন শোভা আশুলিয়া থানা যুবলীগের নেত্রী বলে জানা যায়।

অভিযুক্তরা হলো- আশুলিয়ার ভাদাইল এলাকার মৃত আব্দুস সাত্তার ভুঁইয়ার ছেলে আবু সাদেক ভুইয়া (৫৮) ও তার ছেলে মনির হোসেন ভুইয়া (৩৫), একই এলাকার মোঃ জাহিদ (৩০), মোঃ সাগর (৩৫), মানিক (৩৪), একাব্বর হোসেনের ছেলে আশরাফুল(২৪), আহম্মদ আলীর ছেলে তানভীর হোসেন (২৫), জব্বার মুন্সীর ছেলে আবুল কালাম (৩০), করিম মিয়ার ছেলে সোহেল রানা (২৮), মজিবর রহমানের ছেলে আশরাফুল আলম আসাদ (২৮), সবুজ (৩৫), ইস্তাজ ভ’ইয়া (৫০), সজিব (২৮) ও শাহজাহান মিয়ার ছেলে আনোয়ার হোসেন লালু (৩৫) । অভিযুক্তদের মধ্যে সাদেক হোসেন ভুইয়া আশুলিয়ার ধামসোনা ইউনিয়ন পরিষদের ৬ নং ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, রাজনৈতিক কারণে পূর্বে থেকেই যুবলীগ নেত্রী শাহনাজ পারভিন শোভার সাথে ধামসোনার ৬ নং ওয়ার্ডের সদস্য আবু সাদেক ভুইয়ার সাথে বিরোধ ছিলো। এক পর্যায়ে গত ১১ এপ্রিল বিকেলে আশুলিয়ার ভাদাইল শিরু মার্কেট এলাকায় শাহনাজ পারভিন শোভার ওপর অতর্কৃত হামলা চালায় সাদেক ভুইয়ার ছেলে মনির ও তার দলবল। ওই ঘটনায় পরে দিন শোভা নিজে বাদি হয়ে ৬ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলা দায়ের করায় ক্ষিপ্ত হয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার ইফতারের পর সাদেক ভূঁইয়ার নেতেৃত্ব মনির ভূঁইয়াসহ ৩০/৪০ জন লোক নিয়ে পলাশের দোকানে আসে। এসময় পলাশকে গালিগালাজ করতে করতে দোকানে প্রবেশ করেন মনির ভূঁইয়া। পরে তাকে রড দিয়ে মারতে মারতে দোকানের বাহিরে নিয়ে আসে সে। বাহিরে থাকা আরও ৩০ থেকে ৪০ জনের সন্ত্রাসী বাহিনী চাপাতি, রোহার রোড, লাঠি ও দেশীয় অস্ত্রদিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাথাড়ি ভাবে কোপাতে ও পেটাতে থাকে। এক সময় পলাশকে মৃত ভেবে রাস্তায় রেখে পালিয়ে যায় তারা। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে বর্তমানে তার চিকিৎসা চলছে।

এ ঘটনায় ভুক্তোভোগীর স্ত্রী যুবলীগ নেত্রী শাহনাজ পারভিন শোভা সারাদিন ডট নিউজকে বলেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এর আগেও আমাকে পিটিয়ে হাত ভেঙে দিয়েছে সাদেক ভূঁইয়ার ছেলে মনির ভূঁইয়া। গতকাল আমার স্বামীকেও মেরে ফেলার উদ্দেশ্যে হামলা করেছে সে। আমরা আমাদের জীবনের নিরাপত্তা সহ প্রতিটি হামলার সুষ্ঠু বিচার চাই।

Nagad

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফজর আলী সারাদিন ডট নিউজকে বলেন, এ বিষয়ে থানায় একটি অভিযোগ হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এছাড়া মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। এ ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।