ইভার মেডিকেল পড়ানোর দায়িত্ব নিলেন প্রতিমন্ত্রী পলক

নাটোর সংবাদদাতানাটোর সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১১:৪৮ অপরাহ্ণ, ২২/০৪/২০২১

নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার ইভা খাতুন সরকারি মেডিকেলে চান্স পেয়েও টাকার অভাবে পড়তে পারছেন না জেনে তার দায়িত্ব নিলেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ।

ইভা খাতুনের উপজেলার সলইপাড়া গ্রামের মৃত ইউসুফ আলী ও ঝরনা বেগমের মেয়ে। গত দুই এপ্রিল অনুষ্ঠিত হওয়া এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় মেধা তালিকায় মাগুরা মেডিকেল কলেজে পড়ার সুযোগ পান। তবে দরিদ্র হওয়ায় ভর্তি হওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তায় ছিলেন।

জানা গেছে, ইভার বয়স যখন দুই বছর চার মাস, তখন তার বাবা কিডনিজনিত সমস্যায় মারা যান। এরপর থেকে অভাব-অনটনের সংসারে মেয়ে বড় হতে থাকে। শেষ সম্বল ১৫ শতাংশ জমিও স্বামীর চিকিৎসা করাতে বন্ধক রাখতে হয়েছে ঝরনা বেগমকে। তাকে টিউশনি করে অনেক কষ্টে সংসার ও মেয়ের লেখাপড়ার খরচ চালাতে হয়েছে।

এ বিষয়ে পলক বলেন, ইভা খাতুনের মা একজন সংগ্রামী নারী। তার চেষ্টায় ইভার এই সাফল্য। আমি ইভার পড়ালেখার যাবতীয় খরচ বহন করবো। আমি বেঁচে থাকতে তার কোনো চিন্তা নেই।

এ প্রসঙ্গে ইভা খাতুন বলেন, জুনাইদ আহমেদ পলক স‍্যার আমার সঙ্গে ও আমার মায়ের সঙ্গে কথা বলেছেন। আমার পড়ালেখার সব দায়িত্ব তিনি নিয়েছেন। আমরা তাকে আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, বাগাতিপাড়ার ইউএনও প্রিয়াংকা দেবী পালসহ আরও অনেকে ফোন করে আমাকে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন। তাদের সবাইকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

Nagad

সারাদিন/২২এপ্রিল/এএইচ