‘সুস্থতার দিকে যাচ্ছেন খালেদা জিয়া, শারীরিক অবস্থা ভালো’

নিজস্ব প্রতিবেদক:নিজস্ব প্রতিবেদক:
প্রকাশিত: ১০:৩৯ পূর্বাহ্ণ, ২২/০৪/২০২১

ফাইল ছবি

ধীরে ধীরে সুস্থতার দিকে যাচ্ছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তাঁর শারীরিক অবস্থা ভালো আছে। গত চারদিনে তাঁর জ্বর আসেনি। দুর্বলতা ছাড়া অন্য কোনো সমস্যা নেই বলে জানিয়েছেন নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে চিকিৎসকেরা এ তথ্য জানিয়েছেন।

খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক দলের অন্যতম সদস্য অধ্যাপক এ জেড এম জাহিদ হোসেন এবং আবদুল্লাহ আল মামুন বুধবার (২২ এপ্রিল) রাত ১০টার পর গুলশানে তাঁর বাসায় যান। এ সময় তাঁরা সার্বিক খোঁজ-খবর নেওয়ার পর গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন।

ডা. এ জেড এম জাহিদ বলেন, দিন-দিন ম্যাডামের (খালেদা জিয়া) শারীরিক দুর্বলতা কিছুটা কমে আসছে। গতকালের চেয়ে আজকে তার শারীরিক দুর্বলতা অনেক কম। তিনি নিজেই বলছেন, গতকালের চেয়ে আজকে তিনি আরো বেশি ভালো বোধ করছেন। কাজেই ১৪তম দিনে এসে একজন চিকিৎসক হিসেবে বলতে পারি, তার অবস্থা অনেকটা উন্নতি হয়েছে। তার অবস্থা শুধু স্থিতিশীল নয়, তার থেকেও তিনি প্রতিদিন অল্প অল্প করে উন্নতি লাভ করছেন। আগামী ২-১ দিনের মধ্যে তার কিছু ব্লাড টেস্ট করা হবে। আগামী সপ্তাহে তার পরবর্তী করোনা টেস্ট করা হবে।

এসময় তিনি আরো বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া দেশবাসীর জন্য দোয়া করছেন এবং তিনি নিজেও দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন, যেন পূর্ণ আরোগ্য লাভ করতে পারেন।

খালেদা জিয়া শঙ্কামুক্ত কিনা জানতে চাইলে ডা. জাহিদ বলেন, আসলে ঠিক আগের যে করোনা ছিল, সেটার একটা নিয়ম ছিল, শুরু হয়ে আস্তে আস্তে চলে যাওয়ার। কিন্তু এখন নতুন যে ভ্যারিয়েন্ট এসেছে (যেটা দক্ষিণ আফ্রিকা) তাতে দেখা যাচ্ছে যে রোগী ভালো হয়ে যাওয়ার পরও বিভিন্ন সমস্যা দেখা যাচ্ছে। এখন আমারা বলছি, তার করোনা টেস্ট করবো, সেটার কী রিপোর্ট আসবে? আমাদের মনে রাখতে হবে করোনা আক্রমণ করলে যেমন পজেটিভ আসে, আবার করোনা মৃত হয়ে থাকলেও তখন কিন্তু পজেটিভ হয়। অর্থাৎ অনেক সময় ফলস পজেটিভও হয় আবার ফলস নেগেটিভও হয়। কাজেই সার্বিকভাবে ধরলে তার অবস্থা উন্নতি হয়েছে বলা যায়।

এসময় সাংবাদিকদের আরেক প্রশ্নের জবাবে ডা. জাহিদ বলেন, আমেরিকার ডোনাল্ড ট্রাম্পসহ ভারত,পাকিস্তানের অনেক নেতা, ভূটানের রাজা-রানী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এই ভাইরাস বিভিন্নভাবে প্রবেশ করতে পারে। তবে ভবিষ্যতে আমাদের আরো সর্তক থাকতে হবে। যাতে আবার এই ভাইরাসটা এখানে (খালেদা জিয়ার) বাসায় ঢুকতে না পারে।

Nagad

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শামসুদ্দিন দিদার ও শায়রুল কবির খান।