টেস্টে প্রথম সেঞ্চুরির মুখ দেখলেন শান্ত

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০৪ অপরাহ্ণ, ২১/০৪/২০২১

তামিম ইকবাল সুযোগ হাতছাড়া করলেও ভুল করেননি নাজমুল হোসেন শান্ত। অসাধারণ নির্ভরতা ও সতর্কতায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২২ বছর বয়সী এ তরুণ তুলে নিয়েছেন প্রথম সেঞ্চুরি। টেস্টে আগে এ বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের সর্বোচ্চ ইনিংসটি ছিল ৭১ রানের।

২০১৭ সালের শুরুতে জাতীয় দলের সঙ্গে নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়েছিলেন ব্যাকআপ খেলোয়াড় হিসেবে। কপালগুণে অভিষেক হয়ে যায় শান্তর। স্কোয়াডে একের পর এক চোটের হানায় দ্বিতীয় টেস্টের একাদশে জায়গা পান এই বাঁহাতি। দুই ইনিংসে করেছিলেন ১৮ আর ১২।

সেটা তো ছিল ব্যাকআপ হিসেবে জায়গা পাওয়া। টেস্ট দলে মূলত স্পেশালিস্ট ব্যাটসম্যান হিসেবে শান্ত সুযোগ পান ২০১৮ সালের নভেম্বরে। সিলেটে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সেই টেস্টেও খুব ভালো করতে পারেননি। দুই ইনিংসে করেন ৩ আর ১৫ রান।

এরপর সুযোগ পেয়েছেন নিয়মিতই। কিন্তু গত বছর ঢাকায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৭১ রানের ইনিংস ছাড়া বলার মতো কিছুই করতে পারেননি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্ট সিরিজে তার ইনিংসগু্লো ছিল-২৫, ০, ৪ আর ১১ রানের।

৬ টেস্ট শেষে গড় মাত্র ২১.৯০। হাফসেঞ্চুরি একটি। সর্বোচ্চ ৭১ রানের ইনিংসটিও দুর্বল জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠে। এমন পারফরম্যান্সের পর শান্তর সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন উঠাই স্বাভাবিক। সেটা উঠেছেও।

কিন্তু নির্বাচকরা এবারও বাঁহাতি এই স্ট্রোক মেকারকে টপঅর্ডারে জায়গা দিয়েছেন। অবশেষে তাদের আস্থার প্রতিদানও দিলেন শান্ত। পাল্লেকেলে টেস্টের প্রথম দিনে দারুণ ব্যাটিং করছে বাংলাদেশ দল। যাতে বড় অবদান শান্তর।

Nagad

একদম টেস্ট মেজাজের খেলা যাকে বলে। দেখেশুনে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন তরুণ এই ব্যাটসম্যান। নিজের ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিটি পূর্ণ করেছেন বাউন্ডারি হাঁকিয়েই। ২৩৫ বলে ১২ চার ১ ছক্কায় ১০২ রান করেন শান্ত।

শেষ পর্যন্ত ২৮৮ বলে ১৪টি চার ও এক ছক্কায ১২৬ রানে অপরাজিত থাকেন শান্ত।

১১৭ বলে হাফসেঞ্চুরি করা মুমিনুলও দারুণ ধর্য্যের পরিচয় দেন। তিনি ১৫০ বল মোকাবিলা করে ৬টি চারের সাহায্যে ৬৪ রানে অপরাজিত থাকেন।

লঙ্কান বোলারদের মধ্যে একমাত্র সফল ছিলেন বিশ্ব ফার্নান্দো। তিনি ২টি উইকেটই তুলে নেন।

সারাদিন/২১এপ্রিল/এএইচ