করোনাকালের মানবিক নেইমার

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ৩:০১ অপরাহ্ণ, ১৭/০৪/২০২১

করোনাভাইরাসের আক্রান্ত হয়ে মৃতের দিক থেকে বিশ্বে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ব্রাজিল। কয়েকদিন আগে পযর্ন্ত আক্রান্তের দিক থেকেও বিশ্বে শীর্ষ দুইয়ে ছিল দেশটি। এমন পরিস্থিতিতে স্বাভাবিকভাবেই দেশটির আর্থিক অবস্থা ভঙ্গুর। দারিদ্র্যতাও বেড়েছে প্রচুর।

এদিকে মাঠে ঠিকমতো খেলা না গড়ানোয় ব্রাজিলের তারকা খেলোয়ার নেইমারের আয় কমে গেছে কয়েকগুণ। তাই বলে নিজ দেশে নিজের প্রতিষ্ঠানের কর্মচারিদের বেতন কর্তন করেন নি তিনি। বরং প্রতিষ্ঠানে না আসলেও তাদের বেতন ঠিকমতো দিচ্ছেন তিনি।

অসহায় ও দুস্থ শিশুদের জন্য ব্রাজিলের প্রেইয়া গ্রান্দে অঞ্চলে নেইমার জুনিয়র ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করেছেন, যারা তিন হাজার শিশুর দেখভাল করে থাকে। করোনার প্রভাবে গত বছরের মার্চ থেকে প্রতিষ্ঠানটিতে তালা ঝুলছে।

এই সময়ে প্রতিষ্ঠানের ১৪২ জন কর্মীর চাকরি তো আছেই, উল্টো কাজ না করা সত্ত্বেও ১৪২ জনের প্রত্যেকে পুরোটা সময় ধরে পুরো বেতন পাচ্ছেন। কারও বেতন ১ শতাংশও কাটেননি নেইমার।

কর্মীদের বেতন দিতে গিয়ে প্রতি মাসে প্রায় ৯০ হাজার ইউরো করে খরচ হচ্ছে প্রতিষ্ঠানটির। বাংলাদেশি হিসাবে প্রায় সাড়ে ৯১ লাখ টাকার সমান।

এই সংকট যত দিন চলবে, নেইমার তত দিন তার অধীন কর্মীদের এভাবে বেতন-ভাতা দিয়ে যাবেন বলে প্রতিষ্ঠানটি পরিকল্পনা করেছে বলে জানিয়েছেন, নেইমারের বাবা ও তার মুখপাত্র নেইমার সিনিয়র।

Nagad

সারাদিন/১৭এপ্রিল/এএইচ