লকডাউনে খাবার, অনলাইন শপিং সরবরাহের অনুমতি

নিজস্ব প্রতিবেদক:নিজস্ব প্রতিবেদক:
প্রকাশিত: ৪:২২ অপরাহ্ণ, ১৪/০৪/২০২১

সারাদেশে চলছে কঠোর লকডাউন। এতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের এক নির্দেশ অনুসারে বুধবার (১৪ এপ্রিল) থেকে কার্যকর হওয়া কঠোর লকডাউন চলাকালীন খাদ্য, অনলাইন শপিং এবং পণ্য সরবরাহের অনুমতি দেওয়া হবে। এজন্য সাত-দফা নির্দেশনা রয়েছে এবং স্বাস্থ্য এবং সুরক্ষা নির্দেশিকাটি শতভাগ বজায় রাখতে হবে।

সম্প্রতি সকাল আটটা থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত এদের চলাচলের বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ কর্তৃক আরোপিত শর্তাধীন নিষেধাজ্ঞার ভিত্তিতে বাণিজ্য মন্ত্রনালয় ই-কমার্স সেল মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) দেশের সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলিতে একটি চিঠি দিয়েছে। সেখানে দেশের সকল বিভাগীয় কমিশনার, সমস্ত মহানগর পুলিশ কমিশনার, জেলা প্রশাসক এবং পুলিশ সুপারকে এ চিঠি প্রেরণ করা হয়েছে।

জানা যায়, এই নির্দেশনা অনুসারে, খাদ্য, কৃষিপণ্য এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় পণ্য পরিবহনে নিযুক্ত ট্রাক ও যানবাহনগুলি চব্বিশ ঘন্টা চলাচল করতে সক্ষম হবে। অনলাইন কেনাকাটা উত্সাহিত করা হবে। ডেলিভারিম্যান স্বাস্থ্যকর নিয়ম অনুসরণ করে রাত ১২ টা থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত স্বাভাবিকভাবে যেতে পারবেন। পণ্য সরবরাহ নিশ্চিত করতে গুদামও খোলা রাখা যাবে।

এছাড়াও, রেস্তোঁরাগুলি ১২টা থেকে ৬টা এবং রাত১২ টা থেকে সকাল ৮ টা পর্যন্ত খোলা রেখে খাবার বিতরণ করতে পারবে। তবে যারা ডেরিভারি দিবে, তাদের প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।

এজন্য সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান সরবরাহকারীদের এবং পণ্য পরিবহনে নিযুক্ত ব্যক্তি ও যানবাহনের জন্য প্রয়োজনীয় পরিচয়পত্র সরবরাহ করবে। ই-ক্যাব লোগো এবং সিরিয়াল নম্বর সনাক্তকারী কার্ড সরবরাহকারী এবং যানবাহনের জন্য ব্যবহার করতে পরবে।

এদিকে বাণিজ্য মন্ত্রণালযয়ের এক বিবৃতি থেকে জানা যায়, ইতোমধ্যে প্রতিদিন পণ্যদ্রব্য উত্পাদন, আমদানি, পরিবহন ও বিপণনে সহযোগিতা করার জন্য একটি কন্ট্রোল সেল গঠন করা হয়েছে ।

Nagad

সারাদিন/১৪ এপ্রিল