উইয়ের উদ্যোক্তাদের জন্য সরকারের দ্বার উন্মুক্ত: পলক

উইমেন এন্ড ই-কমার্স ফোরাম (উই) এর উদ্যোক্তাদের জন্য সরকারের দ্বার উন্মুক্ত বলে জানিয়েছেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, এমপি।

শনিবার (১০ এপ্রিল) উইমেন এন্ড ই-কমার্স ফোরাম (উই) আয়োজনে বায়ার সেলার মিট-এর সমাপনী অনুষ্ঠানে এ কথা জানান প্রতিমন্ত্রী।

এসময় আরেও উপস্থিত ছিলেন উই এর গ্লোবাল এডভাইজর ও সিল্কক গ্লোবাল এর সিইও সৌম্য বসু, উই এর উপদেষ্টা জাহানুর কবির সাকিব, উই এর ডিরেক্টর শেখ লিমা এবং উই প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি নাসিমা আক্তার নিশা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জুনায়েদ আহমেদ পলক আরও বলেন, উই -এর বিএসএম এর মত উদ্যোগগুলোর প্রাতিষ্ঠানিক রূপ আসবে ভবিষ্যতে, উই এর সদস্যদের জন্য টেকনোলজি, ট্রেনিং, ট্রেড লাইসেন্স, ট্রান্সেকশন এবং সবাইকে এক করে কাজ করাটা ভীষণভাবে জরুরী।”

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাবের বিকাল চারটা থেকে ছয়টা পর্যন্ত যাতে ব্যবহার করতে পারে উই সদস্যরা সেটা নিয়ে কাজ চলছে। দেশের ৫৫০ টি ডিজিটাল সার্ভিস এমপ্লয়েমেন্ট এন্ড ট্রেনিং সেন্টার হতে যাচ্ছে যার মাধ্যমে উই উদ্যোক্তারা কাজ সহজে করতে পারবেন। ৬৪ টি জেলায় আইটি ইনকিউবেশন সেন্টার, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার, একশপ /একপে এর মাধ্যমে উই এর সদস্যরা ব্যবসায় করতে পারবেন।

প্রতিমন্ত্রী পলক এসময় উই-এর মাধ্যমে লজিস্টিকস সেবা চালুর ঘোষণা ও সহজতর করার সম্পর্কে জানান। তিনি জানান, উই এর মাধ্যমে ২০০০ উদ্যোক্তাকে অনুদান দেয়া হচ্ছে ৫০ হাজার টাকা করে। আমি উই এর থেকে ১০০ জনের তালিকা নিবে, যাদের ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত মাত্র ৪% সুদে বিশেষ বিনিয়োগ করবে আইটি ডিভিশন।

Nagad

এসব ঘোষণায় উচ্ছসিত উই প্রেসিডেন্ট নাসিমা আক্তার নিশা। তিনি জানান, “আমরা কৃতজ্ঞ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের জন্য এতগুলা সুযোগ সৃষ্টি করাতে। পলক ভাই আমাদের অভিভাবক হিসেবে যেভাবে উই কে সাপোর্ট করে যাচ্ছেন প্রথম থেকে এটা আমাদের জন্য বড় আনন্দের এক খবর। আমি ভীষণ আনন্দিত। ভবিষ্যতেও বিএসএম এর মত আয়োজন করবো প্রতিনিয়ত।”

সারাদিন/১০ এপ্রিল