নওগাঁয় বিধবা আসমার স্বপ্ন পুড়ে ছাই

নঁওগা প্রতিনিধি:নঁওগা প্রতিনিধি:
প্রকাশিত: ৬:৩৯ অপরাহ্ণ, ০৬/০৪/২০২১

নওগাঁয় বিধবা আসমার স্বপ্ন আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আসমার গোয়াল ঘরে কয়েলের আগুন থেকে আগুন লেগে ২ টি গরু মারা গেছে এবং ১ টি গাভী ও ১টি ছোট বাছুর মারাত্মক দগ্ধ হয়েছে।

নওগাঁ সদর উপজেলার হাঁসাইগাড়ি ইউনিয়ন এর গোপাই (মোল্লা পাড়া ) গ্রামের আসমা একজন বিধবা নারী। স্বামী আব্দুল লতিফ মোল্লা প্রায় ৬বছর আগে মারা যায়। তিনি তার অভাবের সংসারে পর গরু পালন করে ছোট ৩ ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে অনেক কষ্টে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিলেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো আসমা গোয়াল ঘরে অতিরিক্ত মশার জন্য সোমবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে গোয়াল ঘরে কয়েল জ্বালিয়ে দেয়। এর পর মঙ্গলবার রাত আনুমানিক ২টার দিকে অতিরিক্ত আগুন ও ধোঁয়া দেখতে পেয়ে চিল্লাতে শুরু করেন আসমা বেওয়া। এর পর প্রতিবেশী ছুটে আসে এবং আগুন নিভানোর চেষ্টা করে। স্থানীয়রা আগুন নিভাতে সক্ষম হলেও গোয়াল ঘরে থাকা দুটি গরু পুড়ে মারা যায় এবং একটি গরু মারাত্মকভাবে দগ্ধ হয়।

ভুক্তভোগী আসমা বলেন, দুর্ঘটনার ফলে আনুমানিক আড়াই লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে। আমার সব সম্বল আগুনের সাথে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। গরু এবং ঘর মিলে আমার প্রায় আড়াই লক্ষ টাকার মত ক্ষতি হয়েছে। আমি এখন কি খাবো । গরু লালন-পালন করে সংসার চলতো সেটাও আজ নাই। কি করে সংসার চলবে?

নওগাঁ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি ) নজরুল ইসলাম জুয়েল বলেন, বিষয়টি জানার পর ভুক্তভুগি বিধবা আসমাকে থানায় লিখিত সাধারণ ডায়েরি করতে বলেছি। তবে ঘটনাটি সত্যিই দুঃখজনক। তবে যতদূর জানি গোয়াল ঘরে কয়েলের আগুন থেকেই এমন দুর্ঘটনা ঘটেছে।

Nagad