কমেছে মুরগির দাম, শশার কেজি ৮০ টাকা, চাল-ডিমের দামও বেড়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক:নিজস্ব প্রতিবেদক:
প্রকাশিত: ১:০০ অপরাহ্ণ, ১৪/০১/২০২২

সপ্তাহের ব্যবধানে মুরগির দাম কমলেও ভরা মৌসুমেও চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের সবজি। বাজারে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে ১০ টাকা কমেছে। তবে বেড়েছে শসা, ফুলকপি ও শিমসহ বেশ কিছু পণ্যের দাম।

এদিকে অস্বাভাবিক দাম বাড়ার পর মুরগির দাম কমতে শুরু করেছে। গেলো সপ্তাহে রাজধানীর বাজারগুলোতে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে ১০ টাকা এবং পাকিস্তানি কক বা সোনালি মুরগির দাম কেজিতে ২০ টাকা পর্যন্ত কমেছে। এতে দুই সপ্তাহে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে ২৫ টাকা এবং আর সোনালি মুরগি ৮০ টাকা পর্যন্ত কমলো।

শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছ।

বাজারে ব্রয়লার মুরগির কেজি বিক্রি করছেন ১৭০ থেকে ১৭৫ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ১৮০ থেকে ১৮৫ টাকা। আর দুই সপ্তাহ আগে ছিল ১৯৫ থেকে ২০০ টাকা।

কমেছে সোনালি ও লাল লেয়ার মুরগি দামও। সোনালি মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৪০ থেকে ২৬০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ২৬০ থেকে ২৮০ টাকা। আর দুই সপ্তাহ আগে ছিল ৩০০ থেকে ৩৪০ টাকা। গত সপ্তাহে ২৪০ থেকে ২৫০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া লাল লেয়ার মুরগি কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৩০ থেকে ২৪০ টাকা।

সরবরাহ বাড়াতে মুরগির দাম কমেছে বলে জানিয়েছেন ব্যবাসয়ীরা। সামনে মুরগির দাম আরও কমবে।

Nagad

এদিকে সবজির বাজারে সপ্তাহের ব্যবধানে শসার দাম বেড়ে প্রায় তিনগুণ হয়েছে। শসার কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৮০ টাকা। গত সপ্তাহে যা ছিল ২৫ থেকে ৩০ টাকা।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, সরবরাহ কমে যাওয়ায় শসার দাম বেড়েছে। তবে শসার এই দাম বেশি দিন থাকবে না। অল্প সময়ের মধ্যেই শসার দাম কমে যাবে।

শসার পাশাপাশি বেড়েছে ফুলকপির দামও। গত সপ্তাহে ৩০ থেকে ৪০ টাকা পিস বিক্রি হওয়া ফুলকপির দাম বেড়ে ৪০ থেকে ৬০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। শিম বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৮০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ৪০ থেকে ৬০ টাকার মধ্যে।

তবে সপ্তাহের ব্যবধানে দাম অপরিবর্তিত রয়েছে পাকা টমেটো, গাজর, মুলা ও শালগমসহ অন্যান্য সবজির।