‘নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকলে বিপিএলে দর্শক উপস্থিতির প্রশ্নই আসে না’

ক্রীড়া প্রতিবেদকক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৬:৪৭ অপরাহ্ণ, ১৩/০১/২০২২

সংগৃহীত

আগামী ২১ জানুয়ারি থেকে শুরু হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ-বিপিএল’র অষ্টম আসর। কিন্তু দেশেজুড়ে করোনাভাইরাস ও এর নতুন ধরন (ভেরিয়েন্ট) ওমিক্রন সংক্রমণ বাড়ছে।

এই পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) থেকে সরকার ১১ দফা নির্দেশনা দিয়ে সারাদেশে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। তাছাড়া ওমিক্রন সংক্রমণ রোধে সরকার গত ১১ জানুয়ারি সামাজিক , রাজনৈতিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানে সব রকম সমাবেশ নিষিদ্ধ করেছে। এরই মধ্যে শুরু হয়ে গেছে বঙ্গবন্ধু বিপিএল-২০২২-এর কাউন্টডাউন।

কিন্তু করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখীর কারণে সরকারঘোষিত বিধিনিষেধের মধ্যে ক্রিকেট অনুরাগীরা কী মাঠে বসে বিপিএল দেখতে পারবেন?

সরকারি নিষেধাজ্ঞা জারির পরপরই বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক বলেন, “আমাদের ইচ্ছা ছিল ডাবল ভ্যাকসিন যাদের নেয়া আছে, তারা যাতে মাঠে গিয়ে বিপিএল খেলা দেখতে পারে। কিন্তু এখন যেহেতু সরকারি নিষেধাজ্ঞা চলে এসেছে, তাই এই অবস্থায় দর্শক উপস্থিতিতে খেলা চালানোর প্রশ্নই আসে না। সরকারি নির্দেশ মেনেই খেলা চালানো হবে।”

সিলেটে স্বাধীনতা কাপ দেখতে গিয়ে বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, “অবশ্যই দর্শকদের প্রবেশ করানোর ব্যাপারে একটু শঙ্কা আছে। টুর্নামেন্ট হবে ইনশাআল্লাহ্‌। কিন্তু দর্শকদের প্রবেশাধিকার দেওয়ার ব্যাপারে আমাদের চিন্তা করতে হচ্ছে। আমরা দর্শকদের অনুমতি দিতে পারব কি-না এটা নিয়ে এখন বড় প্রশ্ন আছে।”

বিসিবি প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দীন চৌধুরী সুজন গণমাধ্যমে বলেন, “সরকারি নির্দেশ ও নিষেধাজ্ঞা মেনে চলতেই হবে। তাই নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকলে মাঠে দর্শক উপস্থিতি সম্ভব নয়।” তিনি আরও বলেন, “সরকারি নিষেধাজ্ঞায় যদি পরিবর্তন আসে, মানে নিষেধাজ্ঞা যদি উঠে যায়, তখনই কেবল মাঠে দর্শক আসতে পারবে।”

Nagad

উল্লেখ্য, আগামী ২১ জানুয়ারি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ-বিপিএল’র অষ্টম আসরের প্রথম ম্যাচেই মুখোমুখি হচ্ছে সাব্বির রুম্মনদের চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স আর সাকিবদের ফরচুন বরিশাল। ২১ থেকে ২৫ জানুয়ারি মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে মোট আটটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। মাঝে এক দিনের বিরতি দিয়ে প্রতিদিন মিরপুরে দুটি করে ম্যাচ মাঠে গড়াবে। এরপর ২৮ জানুয়ারি থেকে ১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চট্টগ্রামের মাঠে দর্শকরা বিপিএল উপভোগ করতে পারবেন। চট্টগ্রাম থেকে ফের মিরপুরে ৩ ও ৪ ফেব্রুয়ারি নিয়ে আসা হবে টুর্নামেন্টের ম্যাচগুলো। ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে সিলেটে অনুষ্ঠিত হবে ছয়টি ম্যাচ। ৯ থেকে ১৮ ফেব্রুয়ারি আসরের বাকি ম্যাচগুলো ফের ঢাকায় নিয়ে আসা হবে। মোট তিন দফায় মিরপুরের শেরেবাংলায় বিপিএলের ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে।

শুক্রবার বাদে দিনের প্রতিটি ম্যাচ দুপুর সাড়ে ১২টায় আর দ্বিতীয় ম্যাচ সন্ধ্যা সাড়ে ৫ টায় মাঠে গড়াবে। শুক্রবার দিনের প্রথম খেলা দুপুর দেড়টায় ও দ্বিতীয় খেলা সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়। ছয়টি দলের মোট ৩৪টি ম্যাচ উপভোগ করতে পারবেন দর্শকরা।

সারাদিন/১৩ জানুয়ারি/এমবি