দেশের চিলাহাটি ও ভারতের মধ্যে রেল যোগাযোগের কাজের পরিদর্শনে রেলমন্ত্রী

বাংলাদেশর উত্তর অঞ্চলের চিলাহাটি ও ভারতের হলদিবাড়ীর মধ্যে রেল যোগাযোগের কাজ পরিদর্শন করেছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।

শুক্রবার (৩১ জানুয়ারী ) রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন নীলফামারী জেলার ডোমার উপজেলার চিলাহাটি এসে ভারত বাংলাদেশের রেল যোগাযোগের কাজ কতদুর হল তা তিনি স্বচক্ষে পরিদর্শন করলেন।

এছাড়া ভারত বাংলাদেশ সীমান্তে জিরো লাইনে দুই পক্ষের কাজ শেষ করার জন্য ভারতীয় রেল কর্তপক্ষকে অনুরোধ করেন, যাতে জিরো লাইনে ১৫০ গজ লোম্যানল্যান্ট লাইনের কাজ দ্রুত সমাপ্ত হয়। এই সময় ভারতীয় রেল কতৃপক্ষ ও বিএসএফ এর কতৃপক্ষ উপস্থিত ছিলেন।

অন্য দিকে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ম্যাক্স কো: লি: মন্ত্রীকে জানান, রেলের ৬০ ভাগ কাজ সম্পূর্ন হয়েছে। পরবর্তী কাজ আগামী জুন মাসে শেষ হবে এবং রেল যোগাযোগ শুরু হবে বলে মন্ত্রীকে অবহিত করেন।

উল্লেখ্য ভারত বাংলাদেশ চিলাহাটির মধ্যে ৬.৬২৭ কি.মি. রেলপথ যোগাযোগের কাজ গত ২০১৯ সালে ২১ সেপ্টেম্বর উদ্ভোদন করেন রেলমন্ত্রী। ৮৪ কোটি টাকা ব্যায়ে এই প্রকল্পের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। রেল মন্ত্রী সীমান্তের জিরো লাইন পর্যন্ত কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

রেলমন্ত্রী চিলাহাটি পরিদর্শনকালে তার সঙ্গে ছিলেন রেলের উর্ধতন কর্তৃপক্ষ, জেলা প্রাভাশক , ৫৬ বিজিবির অধিনায়ক, ডোমার উপজেলা নির্বাহী অফিসার, জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি, উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভোগডাবুরী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ।

রেলপথ পরিদর্শনকালে সাংবাদিকের সঙ্গে কথা বলেন তিনি বলেন যে, এই রেলপথ চালু হলে এই অঞ্চলের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হবে ও ভারত বাংলাদেশের মধ্যে বন্ধুত্ব সুদৃঢ় হবে। তিনি পঞ্চগড় এক্সপ্রেস, একতা ও দ্রুতযান এক্সপ্রেস এর সঙ্গে যোগাযোগের জন্য চিলাহাটি থেকে একটি কানেকটিভ ট্রেন দেওয়ার আশ্বাস দেন।

সারাদিন/১ ফেব্রুয়ারি/