নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৩০ পূর্বাহ্ণ, ০১/০২/২০২০

আজ অবশেষে শুরু হয়েছে নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। শনিবার সকাল ৮টা থেকে ঢাকার এই দুই সিটি করপোরেশনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। যা বিরতিহীন চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এই ভোটগ্রহণ নির্বিঘ্ন করতেই নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেওয়া হয়েছে রাজধানীকে।

সকল থেকেই পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে ভোটাররা নির্ধারিত সময়ের আগেই ভোটকেন্দ্রে ভিড় করেছেন। এবার প্রথমবারের মতো বিভক্ত ঢাকার দুই সিটিতে একযোগে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ হচ্ছে। আর এটিই ইভিএমে সবচেয়ে বড় নির্বাচন।

ভোটে কোথাও কেউ যেন অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করতে না পারে সেজন্য পোশাকধারী পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নজরদারি করছেন। প্রস্তুত রাখা হয়েছে পুলিশ ও র‌্যাবও। পাশাপাশি রয়েছে বিজিবির সদস্যরাও।

এছাড়া স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে প্রস্তুত রাখা হয়েছে পুলিশের সোয়াট দল, র‌্যাবের কমান্ডো সদস্য, দুই সংস্থারই বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট, ডগ স্কোয়াডসহ আর্মাড কার।

পুলিশ জানায়, ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচন শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত নির্বিঘ্নে সম্পন্ন করতে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। পুলিশের পাশাপাশি আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে র‌্যাব, আনসার বাহিনী, বিজিবি ও অন্যান্য গোয়েন্দা সংস্থা সমন্বিতভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

নির্বাচন ঘিরে যেকোনো অপতৎপরতা এড়াতে বিভিন্ন মামলার পরোয়ানাভুক্ত আসামিরাসহ নজরদারিতে রয়েছে বিভিন্ন সংগঠনের কর্মকাণ্ড। রাজধানীর ভোটার ছাড়া বহিরাগতদের তৎপরতার বিষয়ে সজাগ দৃষ্টি রয়েছে। এছাড়া, পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের সাইবার ক্রাইম টিমের মনিটরিংয়ের আওতায় রয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।