কোনো কাজেই লজ্জা না পেতে শিক্ষার্থীদের পরামর্শ শিক্ষা উপমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৬:৩৭ অপরাহ্ণ, ২৫/০১/২০২০

যে কোনো কাজেই লজ্জা না পেতে শিক্ষার্থীদের পরামর্শ দিয়ে শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। তিনি বলেন, আমি যদি একজন বাসের ড্রাইভার হতে পারি, তাতে আমার যে বেতন, তা আজকের অর্থনীতিতে অনেক এমবিএ পাস ছাত্রও পায় না। বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকা অবস্থায় আমি তিনটা চাকরি করেছি। আমি রেস্টুরেন্টে বার্গার বানিয়েছি, সিকিউরিটির কাজও করেছি। সেই কাজের মধ্যে কোনো লজ্জা ছিল না। কিন্তু আমাদের দেশে সন্তানদের এমন কষ্ট করতে হয় না।

শনিবার (২৫ জানুয়ারি) সকালে চট্টগ্রাম নগরের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামের জিমনেশিয়াম মাঠে স্কুলশিক্ষার্থীদের জন্য বাস সার্ভিস উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময়ে তিনি বলেন, বিদেশে শিক্ষাজীবনের সময় শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল তিনটি চাকরি করতেন। তখন তিনি রেস্টুরেন্টে বার্গার বানানোর কাজ করতেন। এমনকি সিকিউরিটির কাজও করতেন। কিন্তু তাতে তিনি লজ্জাবোধ করতেন না।

সাধারণ জীবনযাপন পছন্দ করেন জানিয়ে নওফেল বলেন, কোনো কাজকেই ছোট করে দেখি না। স্কুল-কলেজ শেষ করে বড় বড় চাকরি পেতে হবে। আমাদের মধ্যে এমন একটি মানসিকতা রয়েছে। এই যে চিন্তাটা, অত্যন্ত সংকীর্ণ চিন্তা। তোমাদের সবসময় সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করতে হবে। শিক্ষাজীবন শেষ করে সাধারণ মানুষের মতো জীবনযাপন করতে কোনো লজ্জা নেই। কোনো পেশাকে ছোট করে দেখা উচিত নয়।

এদিকে চট্টগাম নগরীর শিক্ষার্থীদের পরিবহণ দুর্ভোগ কমাতে নগরীতে নামছে এই  দ্বিতল বাসের উদ্বোধন করা হয়। এসব বাসে মাত্র ৫ টাকা ভাড়া দিয়ে যাতায়াত করতে পারবে শিক্ষার্থীরা। দুই রুটে দিনের দুই বেলায় চলবে এসব বাস। দ্বিতল এই বাসগুলোর প্রতিটিতে ৭৩টি করে আসন রয়েছে। প্রথম থেকে এসএসসি ও সমমানের শিক্ষার্থীরা তাদের পরিচয়পত্র দেখিয়ে এসব বাসে উঠতে পারবে। ভাড়া নেওয়ার জন্য বাসগুলোতে থাকবে না কোনো চালকের সহকারী। বাসের সামনে ও পেছনে সংরক্ষিত তালাবন্দী ‘সততা বাক্সে’ ভাড়া দিয়ে শিক্ষার্থীরা নির্ধারিত গন্তব্যে যাতায়াত করবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন জিপিএইচ ইস্পাত লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আলমাস শিমুল।

সারাদিন/২৫ জানুয়ারি/ আরটিএস