সড়ক দুর্ঘটনায় কুবির ৭ শিক্ষার্থী আহত

সড়কে ইজি বাইক উল্টে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের সাত শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) বিকাল তিনটার দিকে কোটবাড়ি-টমছম ব্রিজ সড়কের সাতরা নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের দীপ্ত চৌধুরী, নিগার সুলতানা বৃষ্টি, লিপি আক্তার মুক্তা, সুমাইয়া আক্তার, সায়রা কবির, সাইদুল ইসলাম, এবং ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শাহরিয়ার কবির আলভি।

এদের মধ্যে দীপ্ত চৌধুরী, নিগার সুলতানা বৃষ্টি এবং লিপি আক্তার মুক্তার অবস্থা কিছুটা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। দীপ্তকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে এবং বৃষ্টি ও লিপিকে কুমিল্লা ট্রমা সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ফয়সাল ইসলাম বলেন, মঙ্গলবার বিকাল তিনটার দিকে কোটবাড়ি থেকে ইজিবাইকে করে কান্দিরপাড় যাওয়ার পথে সাঁতরায় মোড় ঘুরানোর সময় ইজি বাইকের গতি না কমানোয় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে উল্টে যায়। এসময় দীপ্ত ইজিবাইকের নিচে চাপা পড়ে। ফলে তার কোমরের হাড় ভেঙ্গে যায়। এসময় ইজিবাইকে থাকা অন্যান্য যাত্রীরা ছিটকে পড়ে যায় এবং বৃষ্টির কাঁধের হাঁড় ভেঙ্গে যায়। পরে আহতাবস্থায় তাদেরকে কুমিল্লা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়।

অবস্থা গুরুতর হওয়ায় দীপ্ত, বৃষ্টি ও লিপিকে কুমিল্লার ট্রমা সেন্টারে ভর্তি করানো হয়। পরবর্তীতে দীপ্ত’র অবস্থার আরও অবনতি হলে তাকে ঢাকায় রেফার করা হয়। বর্তমানে সে ধানমন্ডির গ্রিনলাইফ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

জানতে চাইলে মার্কেটিং বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আমজাদ হোসেন সরকার জানান, ‘খবর পেয়েই আমরা হাসপাতালে গিয়ে তাদের খোঁজ নিয়েছি। গুরুতর আহত দীপ্তকে ঢাকায় নেওয়া হয়েছে। বাকিদের চিকিৎসাও চলছে।’

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রোক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন জানান, ‘আমি এই ঘটনার বিষয়ে কিছুই শুনিনি। কোনও শিক্ষার্থী বা শিক্ষক কেউ আমাকে জানায়নি, এইমাত্র শুনলাম। যেহেতু শুনেছি, আমি তাদের চিকিৎসার খোঁজ নিবো।’

সারাদিন/২২ জানুয়ারি/টিআরএস