‘ইভিএম নিয়ে কারও শঙ্কার কথা শুনিনি’

বিশেষ প্রতিবেদকবিশেষ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৫:০১ অপরাহ্ণ, ২১/০১/২০২০

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়রপ্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেছেন, ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) একটি আধুনিক প্রযুক্তি। এটা নিয়ে আমি এখন পর্যন্ত কারও শঙ্কার কথা শুনিনি। ঢাকাবাসী সাদরে এই ইভিএমটাকে গ্রহণ করেছে।

মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) দুপুরে পুরান ঢাকার রায় সাহেব বাজার মোড়ের পাশে ৪২ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে থেকে গণসংযোগ শুরুর আগে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

‘সাঈদ খোকন আপনাকে কোনো সহযোগিতা করছে কিনা? সেটা দৃশ্যত দেখা যাচ্ছে না’- জানতে চাইলে তাপস বলেন, ‘তিনি এখনও মেয়র আছেন। সুতরাং আচরণবিধি লঙ্ঘন করে কোনো কিছু আমরা প্রত্যাশা করি না। তবে সব সময় তিনি আমাকে সমর্থন দিয়ে চলেছেন। মনোনয়ন না পাওয়াতে হয়তো তিনি একটু কষ্ট পেতে পারেন। কিন্তু বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ একটি ঐক্যবদ্ধ দল। সর্বস্তরে নেতাকর্মীরা রাজপথে আছে, মাঠে আছে এবং গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছে।’

বিএনপি প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, ঢাকা উত্তর এবং দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে যে নির্বাচন হচ্ছে, এটি স্থানীয় সরকার নির্বাচন। স্থানীয় সরকার নির্বাচনে ঢাকাবাসী তাদের যোগ্য ও দক্ষ সেবক নির্বাচিত করবে। সেখানে আমরা লক্ষ্য করছি, প্রতিদ্বন্দী প্রার্থী এই নির্বাচনকে ঢাকাবাসীর উন্নয়নের জন্য নিচ্ছে না। তারা এই নির্বাচন নিচ্ছে তাদের আন্দোলনের অংশ হিসেবে। তাদের নেত্রীকে মুক্ত করার আন্দোলন হিসেবে। আমরা এই নির্বাচনকে ঢাকাবাসীর উন্নয়নের জন্য নিয়েছি। সুতরাং আমাদের কাছে এই নির্বাচন হচ্ছে ঢাকাবাসীর জন্য নির্বাচন।

ফজলে নূর তাপস বলেন, ঢাকাবাসী আমাদের উন্নয়নের রূপরেখা সাদরে গ্রহণ করেছে। সেইসঙ্গে তারা অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় রয়েছে পহেলা ফেব্রুয়ারি নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে উন্নত ঢাকা গড়ার লক্ষ্যে রায় প্রদানের জন্য। এর মধ্য দিয়ে একটি নব সূচনা হবে। একটি নবযাত্রা আমরা শুরু করব।

তিনি বলেন, আমাদের এই প্রাণের ঢাকাকে উন্নত ঢাকা গড়ার লক্ষ্যে পাঁচটি রূপরেখা দিয়েছি। প্রথমত: আমাদের ঐতিহ্যের ঢাকা, দ্বিতীয়ত: আমাদের সুন্দর ঢাকা, তৃতীয়ত: আমাদের সচল ঢাকা, চতুর্থত: আমাদের সুশাসিত ঢাকা, পঞ্চম: আমাদের দীর্ঘ মেয়াদী মহাপরিকল্পনার আওতায় উন্নত ঢাকা গড়ে তোলার নবযাত্রা। আমি বিশ্বাস করি, এই নবযাত্রায় ঢাকাবাসী দল-মত নির্বিশেষে উন্নত ঢাকা গড়ার পক্ষে রায় দেবে।

এদিন সূত্রাপুর, কোতোয়ালি, গেন্ডারিয়া, ইসলামপুর এলাকায় নির্বাচনি গণসংযোগ করেন তাপস। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, সানজিদা খানম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মান্নাফিসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

সারাদিন/২১জানুয়ারি/টিআর