পর্তুগালের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে দুইজন ছুরিকাহত

আন্তর্জাতিক ডেস্কআন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:১০ পূর্বাহ্ণ, ২১/০১/২০২০

রোববার (১৯ জানুয়ারি) পর্তুগালের রাজধানী লিসবনে অভিবাসী বাংলাদেশীদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে দুইজন গুলিবিদ্ধ ও দুইজন ছুরিকাহত হয়েছেন। তারা এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এই ঘটনাটি কোনো রাজনৈতিক বিরোধ নয়।

পর্তুগাল বিএনপির সভাপতি অলিউর রহমান চৌধুরী ও পর্তুগাল আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ফরহাদ মিয়ার মধ্যকার দীর্ঘদিনের ব্যক্তিগত বিরোধের চূড়ান্ত প্রকাশই হচ্ছে এই সংঘর্ষ। এই দুই ব্যাক্তি দুইটি বড় রাজনৈতিক দল আওয়ামীলীগ ও বিএনপির স্থানীয় নেতা হলেও এই ঘটনা রাজনৈতিক নয়। বরং উভয় দলের অন্যান্য নেতৃবৃন্দরা বিষয়টি মীমাংসায় দীর্ঘদিন থেকে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

লিসবন সিটি সেন্টারের ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও পর্তুগাল বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ সেন্টারের চেয়ারম্যান রানা তাসলিম উদ্দিন বলেন, আমি লিসবনের গোয়েন্দা সংস্থার সাথে এ বিষয়ে কথা বলেছি। তারা জানিয়েছে দুইজন গুলিবিদ্ধ ও দুইজন ছুরিকাহত হলেও কেউ মারা যায়নি। তাদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশংকামুক্ত এবং একজন কিছুটা ক্রিটিক্যাল।

স্থানীয় প্রবাসী আজাদ আহমদ বলেন, এমন ঘটনায় বাংলাদেশী কমিউনিটিতে আতংক ছড়িয়ে পড়লেও স্থানীয় প্রশাসন শক্ত হাতে তা মোকাবেলা করছে। এমন কান্ডে অভিবাসীদের ভবিষ্যৎ কঠিন হয়ে যেতে পারে এবং তা বাংলাদেশের জন্য লজ্জা।

সারাদিন/২১জানুয়ারি/টিআর