শাওমি এই প্রথম বাংলাদেশে আয়োজন করলো মি পপ

গ্লোবাল টেকনোলজি লিডার শাওমি, গত ১৬ জানুয়ারি বৃহস্প্রতিবার বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো উদযাপন করেছে মি পপ। মি পপ হচ্ছে শাওমির একটি বিশেষ অনুষ্ঠান, যেখানে সারা দেশের মি ফ্যানরা শাওমির কর্মকর্তাদের সাথে একত্রিত হয়ে আনন্দ উৎসবে মাধ্যমে একটি দিন উৎযাপন করে। শাওমি ২০১২ সাল থেকে সাড়াবিশ্বে এই ইভেন্টটি আয়োজন করে আসছে।

এই অনুষ্ঠানে শাওমির উচ্ছ্বাসিত মি ফ্যানরা শাওমি দলের সাথে বেশ কিছু কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করে। যেখানে মি ফ্যানরা তাদের কার্য়ক্রম সর্স্পকে আলোচনাসহ কুইজ থেকে শুরু করে লাকি ড্র-এর মত কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করে থাকে যা থেকে মি ফ্যানরা শাওমির বিভিন্ন পণ্য সহ আরো অনেক আকর্ষণীয় পুরস্কার জেতার সুযোগ পেয়ে থাকে। শাওমির এই মেগা ইভেন্টে মি কমিউনিটিতে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখার জন্য শাওমির পক্ষ থেকে মি ফ্যানদের পুরস্কার প্রদান করা হয়।

দর্শনীয় এই সন্ধ্যাকে আরো আকর্ষনীয় করে তুলেছিলো বাংলাদেশের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী-গীতিকার তানজির তুহিনের গান। তুহিনের পাখি এবং বন্ধ জানালা গানগুলো শুনে মি ফ্যানরাসহ পুরো অনুষ্ঠানের দর্শক যেন আনন্দ ও উল্লাসে মেতে ওঠে।

উচ্ছ্বাসিত একটি দল হচ্ছে মি ফ্যানরা, যারা শাওমির ব্র্যান্ডের প্রতি নিবিড়ভাবে অনুগত এবং সক্রিয়ভাবে কোম্পানির পণ্য উন্নয়নে অবদান রাখে। বর্তমানে বাংলাদেশে মি কমিউনিটিটির প্রায় এক লাখেরও বেশি নিবন্ধিত ব্যবহারকারী রয়েছে। যারা দেশের মধ্যে শাওমিকে অন্যতম শীর্ষ ব্র্যান্ড হিসেবে তৈরি করা জন্য একটি শক্তিশালী কমিউনিটি হিসেবে কাজ করছে। শাওমি তাদের মি ফ্যানদের জন্য অনলাইন এবং অফলাইনে বেশ কিছু কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। যার মাধ্যমে মি ফ্যানরা শাওমির বিভিন্ন অনুষ্ঠানে সরাসরি অংশগ্রহণ করতে পারে এবং অনলাইনে বিভিন্ন প্রতিযোগিতা, ফ্যান মিট ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিভিন্ন পোস্টগুলিতে অংশ নিতে পারে। অফিসিয়াল ভাবে বাংলাদেশে ঢাকা ও চট্টগ্রামে মি ফ্যান ক্লাব রয়েছে এবং শীঘ্রই অন্যান্য শহরে মি ফ্যান ক্লাব করার জন্য পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

শাওমি বাংলাদেশের কান্ট্রি জেনারেল ম্যানেজার জিয়া উদ্দিন চৌধুরী বলেন, “আমরা আমাদের মি ফ্যানদের জন্য এই প্রথম বাংলাদেশে মি পপ আনতে পেরে খুবই আনন্দিত ও উচ্ছ্বাসিত। মি ফ্যানরা আমাদের ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে রয়েছে এবং তাদের সার্বক্ষণিক সমর্থন ও মূল্যবান প্রতিক্রিয়ার মাধ্যমে একটি ব্র্যান্ড হিসেবে বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত হতে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছেন তারা। এধরনের অনুষ্ঠানগুলো তাদের সাথে একত্রিত হওয়ার জন্য আমাদের জন্য দুর্দান্ত সুযোগ। তারা আমাদের কাছে কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা প্রকাশ করার জন্যই আমাদের এই মি পপ এর মতো আয়োজন যা অত্যন্ত সফল হয়েছে বলেই আমি মনে করি। আমরা আমাদের ৫ শতাধিক মি ফ্যানকে ধন্যবাদ জানাই, যারা মি পপ এ অংশ নিয়েছিলেন এবং এই অনুষ্ঠানকে সফল করেছেন”।

অনুষ্ঠানে শাওমির মি ফ্যানদের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশের জনপ্রিয় ব্যান্ড আভাস’ এর ভোকালিস্ট তানজির তুহিন বলেন, “বাংলাদেশে যেহেতু শাওমির একটা বিশাল কমিউনিটি গড়ে উঠেছে সেহেতু তার সাথে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার মত দায়িত্বও চলে এসেছে। কোনও একটি ব্র্যান্ডের জন্য এতো ফ্যানের বিশাল একটি সমাগম এই প্রথম এবং এটি শুধুমাত্র শাওমিই সম্ভব করে তুলতে পেরেছে।

সারাদিন/১৮ জানুয়ারি/ আরটিএস