দুদকের মামলার ব্যাখ্যা দিলেন মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৫:৫৭ অপরাহ্ণ, ১৬/০১/২০২০

সরকার রাজনৈতিক ভাবে হেয় ও হয়রানি করতেই ঢাকা দক্ষিন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীর বিরুদ্ধে এক/এগারো সময়ের মামলা সচল করেছে। বুধবার (১৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় বাংলামোটর এলাকায় গণসংযোগকালে এমনটাই জানিয়েছিলেন দক্ষিণ সিটির মেয়রপ্রার্থী ইশরাক হোসেন।

এছাড়া বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সম্পদ বিবরণী না দেওয়ায় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলা নিয়ে ব্যাখ্যাও দিয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞপ্তিতে ইশরাক বলেন, ‘কিছু কিছু গণমাধ্যমে ভুলভাবে আমার মামলার খবরটি পরিবেশন করেছে। উদাহরণ হিসেবে একটি চ্যানেলের কথা বলতে পারি। সেখানে বলা হচ্ছে, দুর্নীতির মামলায় অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। ইংলিশে টিকার যাচ্ছে- ‘indicted in corruption case’।

প্রয়াত সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে ইশরাক আরও বলেন, ‘মামলা হয়েছে সম্পদ বিবরণী চেয়ে নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। আমি দেশের বাইরে থাকার সময় তার উত্তর না দেওয়ার জন্য। এখানে দুর্নীতির কোনো বিষয় নেই। আশা করি, সকল গণমাধ্যম এই বিষয়ে একটু সতর্কভাবে সংবাদটি পরিবেশন করবে‌।’

বিএনপির এই মেয়র প্রার্থী আরও বলেন, ‘২০১০ সাল থেকে এনবিআরের ট্যাক্স দিয়ে আসছি আমি। তাদের কাছে আমার সম্পদের বিবরণী রয়েছে। নির্বাচন কমিশনে দুইটি ইলেকশনের আগে আমার সম্পদের বিবরণী দাখিল করতে হয়েছে। এটি (মামলাটি) রাজনৈতিক হয়রানিমূলক ছাড়া আর অন্য কিছুই নয়।’

প্রসঙ্গত, সম্পদের হিসাববিবরণী জমা না দেওয়ার মামলায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে বিএনপির প্রার্থী ইশরাক হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আাদালত। বুধবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক শেখ নাজমুল আলম এ আদেশ দেন। আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য শুনানির দিন ঠিক করা হয়েছে।

সারাদিন/১৬জানুয়ারি/টিআর