‘খালেদার সাজা স্থগিত করে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দিন’

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৫:৪০ অপরাহ্ণ, ০৯/০১/২০২০

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন খালেদার সাজা স্থগিত করে তাকে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারি) সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আহ্বান জানান। আর এই সম্মেলন আয়োজন করেন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম।

খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, ফৌজদারি কার্যবিধির ৪০১(১) ধারা মোতাবেক কোন সাজার কার্যকারিতা শর্তহীনভাবে স্থগিত করার একমাত্র ক্ষমতা সরকারের হাতে। সরকার প্রতিহিংসার পথ পরিহার করে আইনগতভাবেই চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে পারেন। এজন্য প্রয়োজন সরকারের সদিচ্ছা। তাই আমরা সরকারের নিকট অবিলম্বে খালেদা জিয়ার দণ্ডাদেশ ৪০১(১) ধারা অনুযায়ী স্থগিত করে তার ইচ্ছামত চিকিৎসা নিতে দেশে/বিদেশে সুযোগ দেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।

খন্দকার মাহবুব বলেন, জিয়া ঢারিটেবল ট্রাস্টের মামলায় সর্বোচ্চ সাজা পাঁচ বছর দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে তিনি ২ বছর কারাগারে আটক রয়েছেন। তাই আইনের স্বাভাবিক প্রক্রিয়া ছাড়াও তিনি একজন বয়ষ্ক অসুস্থ মহিলা। এ কারণেও দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী তিনি জামিন প্রাপ্য। কিন্তু আমাদের দুর্ভাগ্য দেশের সর্বোচ্চ আদালত এ মামলায় তার জামিনের আবেদন খারিজ করে দিয়েছে। এর ফলে দেশের বিচার বিভাগের প্রতি সাধারণ মানুষের আস্থা ক্ষুণ্ন হয়েছে।

তিনি বলেন, পিজি হাসপাতাল হতে মেডিকেল বোর্ড তার স্বাস্থ্য সম্বন্ধে যে প্রতিবেদন দিয়েছে তাতে তার বর্তমান অবস্থায় অ্যাডভান্স ট্রিটমেন্ট প্রয়োজন। কিন্তু এখন পর্যন্ত এ ব্যাপারে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয় নাই। ক্ষমতাসীন দলের নেতারা নিজেদের চিকিৎসার জন্য রাষ্ট্রীয় অর্থ ব্যয় করে বিদেশে যান অথচ তিন বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে নিজ ব্যয়ে তার পছন্দ মত সুচিকিৎসার জনা সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না। আমরা মনে করি এটা রাজনৈতিক প্রতিহিংসার চরম অভিব্যক্তি।

সারাদিন/৯জানুয়ারি/টিআর