ইরানি জনগণকে হুমকি দেবেন না, ট্রাম্পকে রুহানি

আন্তর্জাতিক ডেস্কআন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ২:৩০ অপরাহ্ণ, ০৭/০১/২০২০

ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সতর্ক করে বলেন, ইরানি জনগণকে কখনও হুমকি দিবেন না। সোমবার (৬ জানুয়ারি) এক টুইট বার্তায় রুহানি একথা বলেন।

ট্রাম্পের ওই টুইটের জবাব দিয়ে রুহানিও টুইট বার্তায় বলেছেন, যারা ৫২ স্থানের কথা বলছেন তাদের ২৯০ সংখ্যাটাও মনে রাখা দরকার। ১৯৮৮ সালে একটি মার্কিন রণতরী থেকে ইরানি এয়ারলাইনের একটি বিমান গুলি করে ভূপাতিত করা হয়। এতে ২৯০ জন নিহত হয়।

সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় ইরানকে হুমকি দিয়ে বলেছেন, দেশটির ৫২ স্থানে হামলা চালানো হবে। ট্রাম্পের ওই টুইটের জবাব দিয়েই তাকে সতর্ক করলেন রুহানি।

গত শুক্রবার (৩ জানুয়ারি) ইরাকের রাজধানী বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মার্কিন ড্রোন হামলায় ইরানের বিপ্লবী গার্ডের অভিজাত শাখা কুদস ফোর্সের প্রধান জেনারেল কাসেম সোলেইমানিকে হত্যা করা হয়। ওই হত্যাকাণ্ডের নির্দেশনা দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

জেনারেল সোলেইমানি নিহত হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে শনিবার (৪ জানুয়ারি) ইরাকের মার্কিন দূতাবাসের কাছে এবং বাগদাদের গ্রিন জোনে হামলার ঘটনা ঘটে। এরপরেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় ইরানকে হুমকি দেয় যে, তেহরান যদি কোনো আমেরিকান বা কোনো মার্কিন সম্পদে হামলা চালায় তবে তাদের গুরুত্বপূর্ণ ৫২ স্থানে হামলা চালানো হবে।

অপরদিকে জেনারেল সোলেইমানিকে হত্যার কঠোর প্রতিশোধ নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ইরান। সোলেইমানির অনুসারীরা তার মৃত্যুর বদলা হিসেবে মধ্যপ্রাচ্য থেকে মার্কিন সেনাদের বহিষ্কার করবে বলে প্রতিজ্ঞা করেছেন।

সোমবার (৬ জানুয়ারি) রাজধানী তেহরানে জেনারেল সোলেইমানির জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দেশটির শীর্ষ এই জেনারেলের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানাতে তেহরানে সে সময় লাখো মানুষের ঢল নামে। সোলেইমানির মরদেহের প্রতি সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় শ্রদ্ধা নিবেদনের পর তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

সারাদিন/৭জানুয়ারি/টিআর