ইরাক থেকে মার্কিন সেনা ফেরত নিবে না যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্কআন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৩৬ অপরাহ্ণ, ০৭/০১/২০২০

ইরাক থেকে সেনা প্রত্যাহার করার কোনো পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মার্ক এসপার সোমবার (৬ জানুয়ারি) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর একটি চিঠিকে কেন্দ্র করে ইরাক থেকে সেনা প্রত্যাহারের গুঞ্জনের মধ্যেই এ তথ্য জানিয়েছেন তিনি। সূত্র: বিবিসি ও আল জাজিরা।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী এসপার বলেন, ইরাক থেকে সেনা প্রত্যাহারের কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। সম্প্রতি এক মার্কিন জেনারেলের চিঠিতে ইরাক থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করার বিষয়টি প্রকাশ পেয়েছে। এ বিষয়ে এসপার বলেন, এখনি ইরাক ছাড়ার কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

ধারণা করা হচ্ছে, ইরাকে মার্কিন টাস্ক ফোর্সের প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল উইলিয়াম এইচ সেলি ইরাকের কম্বাইন্ড জয়েন্ট অপারেশনের উপপরিচালক আবদুল আমিরকে ওই চিঠি পাঠিয়েছিলেন।

ওই চিঠির শুরুতে লেখা হয়েছে, ইরাকি পার্লামেন্ট এবং দেশটির প্রধানমন্ত্রীর অনুরোধে সিজেটিএফ-ওআইআর সামনের দিনগুলোতে আন্দোলনের জন্য প্রস্তুতির অংশ হিসেবে বাহিনীগুলোকে পুনর্বিন্যাস করবে। ইরাকের অনুরোধে সামনের দিনগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রকে তার সেনাবাহিনীর অবস্থান পরিবর্তন করতে হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়েছে, ইরাকের বাইরে নিরাপদে যাওয়ার জন্য এয়ার ট্রাফিক বাড়ানোসহ কিছু পদক্ষেপ নেওয়া হবে। এছাড়া বাগদাদে গ্রিন জোনে নতুন জোট বাহিনী গঠন করা হবে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।

এসপার ওয়াশিংটনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বলেন, ইরাক ছাড়ার ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। আমি জানি না এই চিঠি কোত্থেকে এসেছে। আমরা এই চিঠির উৎস খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি।

তবে পরবর্তিতে চেয়ারম্যান অফ দ্য জয়েন্ট চিফ অফ স্টাফ মার্ক মিলে বলেন, ওই চিঠিটি ভুল ছিল। তিনি বলেন, একটি খসড়া তৈরি করা হয়েছিল। এটা স্বাক্ষরও করা হয়নি। ওই খসড়া এভাবে প্রকাশ পাওয়া উচিত হয়নি। এসপারের কথার পুণরাবৃত্তি করে মার্ক মিলে বলেন, মার্কিন সেনারা ইরাক ছাড়ছে না।

সারাদিন/৭জানুয়ারি/টিআর