পিরোজপুরের পাঁচ ভুয়া ডাক্তার আটক

পিরোজপুর সংবাদদাতাপিরোজপুর সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ৮:০০ অপরাহ্ণ, ০৬/০১/২০২০

পিরোজপুরে পাঁচ ভুয়া ডাক্তার আটক

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া পৌরসভা এলাকা থেকে পাঁচ ভুয়া ডাক্তারকে আটক করেছে র‌্যাব-৮। সোমবার (৬ জানুয়ারি) দুপুরে পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া পৌর শহরে র‌্যাব-৮ এর একটি দল অভিযান চালিয়ে তাদের আটকের পর ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, জনতা ডেন্টাল কেয়ারের মো. ফাইজুল হক রানা, মডার্ন ডেন্টাল কেয়ারের মো. বাবুল হোসেন, মহিউদ্দিন আহম্মেদ পলাশ, জসিম উদ্দিন শাহীন ও শামীম আকনের ক্লিনিক ভবন মালিক আব্দুল কাদের হাওলাদার।

এ সময় হাড়ভাঙা ক্লিনিকের মালিক ও চিকিৎসক শামীম আকনকে ২ বছরের জেল, দন্ত চিকিৎসক ও জনতা দাতঘরের মালিক মো. ফাইজুল হক রানাকে ৬ মাস, পলাশ ডেন্টাল অ্যান্ড হারবাল কেয়ারের মালিক মহিউদ্দিন আহমেদ পলাশকে ৬ মাস, বেঙ্গল ডেন্টাল কেয়ারের মালিক ও দন্ত চিকিৎসক জসিম উদ্দিন শাহীনকে ৪ মাস, লাকি ডেন্টাল কেয়ারের মালিক ও দন্ত চিকিৎসক মো. বাবুল হোসেন নিরবকে ২ মাস এবং ঘর মালিক আব্দুল কাদের হাওলাদার হাড়ভাঙা ক্লিনিকের কাছে ঘর ভাড়া দেওয়ায় ১৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

বরিশাল র‌্যাব-৮ এর এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানা গেছে, ভাণ্ডারিয়া পৌরসভা এলাকায় কয়েকজন ভুয়া ডাক্তার লোকজনের সঙ্গে প্রতারণার মাধ্যমে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিল। এমন খবর পেয়ে র‌্যাব-৮ এর বরিশালের একটি দল অভিযান চালিয়ে পাঁচ ভুয়া ডাক্তারকে আটক করে। পরে তাদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও জরিমানা করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইয়াসিন খন্দকার আরটিভি অনলাইনকে জানান, আটককৃতরা তাদের স্বপক্ষে কোনও বৈধ কাগজপত্র দেখাতে ব্যর্থ হওয়ায় এবং দোষ স্বীকার করায় বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেওয়া হয়েছে।

সারাদিন/৬ জানুয়ারি/আরটিএস