ধর্ষণের শিকার ঢাবি ছাত্রী, রাতেই ছাত্রলীগের বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিনিধিনিজস্ব প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ৩:৪০ পূর্বাহ্ণ, ০৬/০১/২০২০

রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ছাত্রী ধর্ষিত হওয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল বের করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ ও ঢাবি ছাত্রলীগ। রোববার (৫ জানুয়ারি) গভীর রাত তিনটায় এই মিছিলটি শুরু হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শতাধিক ছাত্রলীগের কর্মী এতে অংশগ্রহণ করেছে।

এর আগে ঢাকা মেডিকেলের সামনে এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাবির ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হওয়ার প্রতিবাদে রোববার রাতেই বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষণা দেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়।

এদিকে ডাকসুর এজিএস ও ঢাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, ছাত্রলীগের কর্মসূচির সাথে ঐক্যবদ্ধ হয় সোমবার (৬ জানুয়ারি) ডাকসুর নেতৃবৃন্দ প্রতিবাদ করবেন এবং পরবর্তীতে ডাকসুর পক্ষ থেকে প্রতিবাদ কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

সাদ্দাম হোসেন বলেন , এ ধর্ষণের বিচার না হওয়া পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার জেগে থাকবে। ধর্ষণকারীকে সর্বোচ্চ শাস্তি দিতে হবে। ধর্ষিতার ছবি ও নাম প্রকাশ না করার আবেদন জানিয়ে ধর্ষকের ছবি প্রকাশ করার জন্য আমাদের সকলের পদক্ষেপ নিতে হবে।

এদিকে সোমবার সকাল ১১ টায় রাজু ভাস্কর্যে বিক্ষোভ কর্মসূচির ডাক দিয়েছেন ঢাবির শামসুন্নাহার হলের ভিপি তাসনিম আফরোজ ইমি ও ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতারা। এর আগে ঢাবির বাস থেকে নামার পর দ্বিতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, রোববার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রাজধানীর শেওড়া যাওয়ার উদ্দেশ্যে ঢাবির বাসে ওঠেন ওই শিক্ষার্থী। সন্ধ্যা ৭ টার দিকে কুর্মিটোলায় বাস থেকে নামার পর অজ্ঞাত ব্যক্তি তার মুখ চেপে তাকে পার্শ্ববর্তী একটি স্থানে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে অজ্ঞান করে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতন করা হয়। পরে তার ১০টার দিকে জ্ঞান ফিরলে তিনি নিজেকে নির্জন স্থানে অবিষ্কার করেন। পরে সেখান থেকে সিএনজি যোগে নিজ গন্তব্যে পৌঁছান। পরে রাত ১২টার দিকে ওই শিক্ষার্থীকে ঢামেক হাসপাতালের ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টারেভর্তি করান তার সহপাঠীরা।

এদিকে এ ঘটনার খবর পেয়ে ইতিমধ্যে ঢামেকে গিয়েছেন ঢাবির কয়েকজন শিক্ষক, ছাত্রলীগ ও ডাকসুর নেতৃবৃন্দ, শিক্ষার্থী ও প্রক্টোরিয়াল বোর্ডের সদস্যরা।

সারাদিন/৬জানুয়ারি/টি