ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী

বিশেষ প্রতিবেদকবিশেষ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২:৪৯ অপরাহ্ণ, ০৪/০১/২০২০

গৌরব, ঐতিহ্য, সংগ্রাম ও সাফল্যের মধ্যে পার হওয়া উপমহাদেশের বৃহৎ সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (০৪ জানুয়ারি) দুপুর আড়াইটায় রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন তিনি। অনুষ্ঠানস্থলে উপস্থিত হলে স্লোগানে স্লোগানে তাকে স্বাগত জানায় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।

এর আগে প্রতিষ্ঠাবার্ষিতী উপলক্ষ্যে সকাল সাড়ে ৬টায় ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শুরু হয় ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আনুষ্ঠানিকতা। ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য্য’র নেতৃত্বে এই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। এসময় ছাত্রলীগের বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

পুনর্মিলনীতে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন। এছাড়াও ছাত্রলীগের বিভিন্ন সময়ে দায়িত্ব পালন করা সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকরাও উপস্থিত রয়েছেন।

এদিকে পুনর্মিলনীতে যোগ দিতে সকাল থেকেই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে উপস্থিত হন ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান নেতাকর্মীরা। নেতাকর্মীদের আগমনে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও এর আশপাশের এলাকায় অন্যরকম এক উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে।

এছাড়াও ৬ জানুয়ারি সোমবার সকাল ১০টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার সামনে হবে রক্তদান কর্মসূচি। ৭ জানুয়ারি সকালে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ ও বিকালে স্বোপার্জিত স্বাধীনতা চত্বরে শীতবস্ত্র বিতরণ করবে ছাত্রলীগ।

Nagad

উল্লেখ্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশনায় ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি জন্ম হওয়া ছাত্রলীগ উপমহাদেশের সর্ববৃহৎ ও প্রাচীন ছাত্র সংগঠন।

সারাদিন/০৪ জানুয়ারি/আরটিএস