গ্রামীণফোন টাকা না দিলে আইনগত ক্ষমতা প্রয়োগ করা হবে: বিটিআরসি চেয়ারম্যান

তিন মাসের মধ্যে গ্রামীণফোন ২ হাজার কোটি টাকা না দিলে আইনে যেসব ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে সেসব প্রয়োগ করা হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক।

বৃহস্পতিবার (২ জানুয়ারি) বিটিআরসি ভবনে টেলিকম রিপোটার্স নেটওয়ার্ক বাংলাদেশের (টিআরএনবি) সদস্যদের সঙ্গে নতুন বছরের শুভেচ্ছা বিনিময়কালে তিনি এ কথা জানান।

মো. জহুরুল হক বলেন, ‘গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থার প্রয়োগ করতে শুরু করেছিলাম প্রায়, তখনই তারা আদালতে গেছে। আদালতের আদেশ আমরাও মানবো। আদালতের আদেশ তারা না মানলে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।’

বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, ‘যেই পাওনা টাকা আমরা চাইলাম, তখন স্বাভাবিক প্রক্রিয়ার মতো যা হয়, যার কাছে টাকা চাওয়া হয়, সে বলে, তুমি টাকা পাবা না। আর যে চায়, সে বলে, আমার ন্যায্য টাকা।’ এ সময় টেলিকম অপারেটরদের কোয়ালিটি অব সার্ভিস নিয়েও কথা বলেন চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বিটিআরসির মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মাহফুজুল করিম মজুমদার বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্যটা এখন মোবাইল অপারেটরের মধ্যে সীমাবদ্ধ আছে, এটাকে আরও প্রসারিত করবো। আমাদের ইকো-সিস্টেমের মধ্যে যারা আমাদের সার্ভিস প্রোভাইডার আছে, প্রত্যেকের জন্য কোয়ালিটি অব সার্ভিস-এর টেস্ট হবে।’

মোবাইল টাওয়ারে স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর রেডিয়েশন পাওয়া যায়নি বলেও জানান তিনি।

সারাদিন/২ জানুয়ারি/আরটিএস