মনোনয়ন নিয়ে সাঈদ খোকন যা বললেন

বিশেষ প্রতিনিধিবিশেষ প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ৪:০৮ অপরাহ্ণ, ৩০/১২/২০১৯

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস। মনোনয়ন চেয়েও পাননি বর্তমান মেয়র সাঈদ খোকন।

মনোনয়নবঞ্চনা নিয়ে ২৪ ঘণ্টায় মুখ খোলেননি মেয়র খোকন। বাসা থেকেও বের হননি। অবস্থান করছেন বনানীর বাসায়। ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের কার্যালয় নগর ভবনেও যাননি তিনি।

তবে সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) রাজধানীর গুলিস্তানের নগরভবনে এ নিয়ে তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আমার বাবা মোহাম্মদ হানিফের হাত ধরেই রাজনীতিতে এসেছি। আর এখন আমার বাবা নেই। তাই আমার অভিভাবক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি আমার ভালোর জন্য যা ভেবেছেন তাই করেছেন। সম্মান দেওয়া ও নেওয়ার মালিক হচ্ছে আল্লাহ।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে সর্বশেষ ডিএসসিসি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে প্রথমবারের মতো মনোনয়ন পান অবিভক্ত ঢাকার সাবেক মেয়র মোহাম্মদ হানিফের ছেলে খোকন। নির্বাচনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসকে বিপুল ভোটে হারিয়ে মেয়র নির্বাচিত হন খোকন।

২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিলের ওই নির্বাচনে ৫ লাখ ৩৫ হাজার ২৯৬ ভোট পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন সাঈদ খোকন। ওই বছর ৬ মে মেয়র হিসেবে শপথ নেন তিনি।

আগামী বছর ১৭ মে পর্যন্ত দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়রের দায়িত্বে আছেন সাঈদ খোকন। ২২ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশন (ইসি) এই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর ২৫ ডিসেম্বর থেকে মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করে আওয়ামী লীগ। প্রথম দিন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ না করলেও দ্বিতীয় দিন দলীয় ফরম সংগ্রহ করেন সাঈদ খোকন। সেদিন তিনি মনোনয়নপত্র হাতে নিয়ে অঝোরে কাঁদেন। বর্তমান সময়কে ‘কঠিন সময়’ অভিহিত করে সবাইকে তার পাশে থাকার আহ্বান জানান খোকন।

সারাদিন/৩০ডিসেম্বর/টিআর