ঢাকা দুই সিটি নির্বাচন নিয়ে রিজভীর সংশয়

জেষ্ঠ্য প্রতিবেদকজেষ্ঠ্য প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৩:৫১ অপরাহ্ণ, ২৯/১২/২০১৯

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেছেন, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে আমি সংশয় প্রকাশ করছি। নির্বাচন পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা সহ সবাই বলেছে, ইভিএম হচ্ছে ভোট কারচুপির অন্যতম হাতিয়ার। কিন্তু নির্বাচন কমিশনের কানে তা ঢুকছে না।

ইভিএম মেশিনের মাধ্যমে কারসাজি করে সরকারের পক্ষে রায় নেওয়ার জন্য জনগণের ইচ্ছার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি)। ক্ষমতাসীনদের জেতাতেই এ অবস্থান থেকে সরছে না ইসি। রোববার ২৯ (ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেন, পৃথিবীর ইতিহাসে অভাবনীয় রেকর্ড সৃষ্টিকারী রাতের ভোটে ক্ষমতা দখলের এক বছর পূর্ণ হবে রোববার (২৯ ডিসেম্বর) রাতে। তাই এ রাতটি দেশবাসীর কাছে তাদের ভোটাধিকার হরণের কালোরাত হিসেবে কলংকিত হয়ে থাকবে। সেদিন গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছিল। তাই সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) কোনো ভোট হয়নি।

তিনি বলেন, সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) এই দিনটিকে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে, যা ইতিমধ্যেই আপনাদের অবহিত করা হয়েছে। ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ উপলক্ষে দেশব্যাপী বিএনপি সভা-সমাবেশ-মিছিল, কালো ব্যাজ ধারণ এবং দলীয় কার্যালয়গুলোতে কালো পতাকা উত্তোলন করবে। ঢাকায় দিবসটি উপলক্ষে সোমবার নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে অথবা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দুপুর ২টায় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। সমাবেশের কথা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মজিবর রহমান সরোয়ার, খায়রুল কবির খোকন, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোশারফ হোসেন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

সারাদিন/২৯ডিসেম্বর/টিআর