কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে জয় রাজশাহী রয়্যালসের

খেলাধূলা ডেস্কখেলাধূলা ডেস্ক
প্রকাশিত: ৭:০২ অপরাহ্ণ, ২৮/১২/২০১৯

রাজশাহীর রানের পাহাড়ে চাপা পড়ে ব্যাট হাতে বিস্ফোরক ইনিংস খেলেছেন সৌম্য সরকার। ৪৮ বলে ৮৮ রানে অপঅরাজিত থেকেও নিজের দল কুমিল্লাকে জেতাতে পারেননি সৌম্য। দল হেরেছে ১৫ রানে। প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৯০ রান সংগ্রহ করেছে রাজশাহী রয়্যালস। জবাবে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৭৫ রানেই শেষ হয়েছে কুমিল্লার ইনিংস।

বঙ্গবন্ধু বিপিএলে আজ দিনের প্রথম ম্যাচে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে রাজশাহী। ব্যাটিংয়ে নেমে দর্দান্ত সূচনা করে রাজশাহী। পাওয়ারপ্লের ৬ ওভারে বিনা উইকেটে ৫৬ রান তোলে তারা। সপ্তম ওভারে ভাঙে ওপেনিং জুটি। ফিরে যান লিটন দাস। সানজামুলের বলে রনির হাতে ক্যাচ হন তিনি। দলীয় ৮০ রানে সৌম্যর বলে বোল্ড হন অপর ওপেনার আফিফ।

এরপর মালিক-বোপারা জুটিতে এগোতে থাকে রাজশাহী। দলীয় ১০৬ রানে মুজিব ‍উর রহমানের বলে বোল্ড হন বোপারা। পরে বোপারা ও রাসেল ৮৪ রানের জুটি গড়ে দলের স্কোর বড় করেন।

দলের পক্ষে ১৯ বলে ২৪ করেছেন লিটন দাস। ৩০ বলে ৪৩ করেন আফিফ হোসেন। ৩৮ বলে ৬১ করেন শোয়েব মালিক। ২১ বলে ৩৭ করে অপরাজিত থাকেন আন্দ্রে রাসেল। কুমিল্লার বোলারদের মধ্যে মুজিব উর রহমান ১টি, সানজামুল ইসলাম ১টি ও সৌম্য সরকার ১টি করে উইকেট নেন।

১৯১ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ২৬ রানে কুমিল্লা শিবিরে প্রথম আঘাত হানেন ফরহাদ রেজা। কুমিল্লার ওপেনার রবিউলকে ১২ রানে সাজঘরে ফেরান এই বোলার। দলীয় ২৯ রানেই সাজঘরে ফেরেন আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান ডেভিড মালান। ৩ রানে তাকে থামিয়ে দেন শোয়েব মালিক।

এরপর সৌম্য সরকারের ঝড়ো অর্ধশতকে বেশ জমজমাট লড়াইয়ের ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছিলো। কিন্তু সাব্বির রহমানের সাথে করা ৫২ রানের জুটি ভেঙে সেখানে কিছুটা বাঁধ সাধেন মোহাম্মদ ইরফান।

কিন্তু তাতেও থেমে যাননি সৌম্য। চালাতে থাকেন তার ব্যাট। কিন্তু দল ততক্ষণে এক রকমে ছিটকেই পড়েছে ম্যাচ থেকে। তার রানের তুবড়ি শেষ পর্যন্ত কমাতে সক্ষম হয়েছে শুধু পরাজয়ের ব্যবধানই। শেষ পর্যন্ত তার ব্যাটে ভর করে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৭৫ রান তুলতে সক্ষম হয় কুমিল্লা। ফলে ১৫ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রাজশাহী।

সৌম্য অপরাজিত থাকেন ৪০ বলে ৬২ করে। রাজশাহীর পক্ষে ১ টি করে উইকেট নেন আন্দ্রে রাসেল, ফরহাদ রেজা, মোহাম্মদ ইরফান এবং শোয়েব মালিক।