আমাদের মধ্যে কোনো বিভেদ নেই, আমরা এখন ঐক্যবদ্ধ: রাঙ্গা

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৫৯ অপরাহ্ণ, ২৮/১২/২০১৯

আমাদের মধ্যে কোনো বিভেদ নেই, আমরা এখন ঐক্যবদ্ধ বলে দাবি করেছেন জাতীয় পার্টি মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা।

শনিবার (২৮ ডিসেম্বর) রাজধানীর রমনায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন চত্বরে জাতীয় পার্টির ৯ম জাতীয় সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এদিকে পার্টির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সহধর্মিণী রওশন এরশাদের ছাড়াই জাতীয় পার্টির সম্মেলন শুরু হয়েছে। শনিবার (২৮ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় জাতীয় সঙ্গীতের মধ্য দিয়ে সম্মেলন শুরু হয়। এর আগে সিদ্ধান্ত হয়েছিল নতুন কমিটিতে এরশাদের অবর্তমানে তার সহধর্মিণী রওশন এরশাদকে প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে রাখা হবে। তবে সেই সিদ্ধান্ত ছাড়াই দলের জাতীয় কাউন্সিল শুরু হয়েছে।

মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, নব্বই সালে আমাদের নেতার দুর্নীতি বের করার চেষ্টা করা হয়েছে। খালেদা জিয়া ১০ লাখ টাকা খরচ করে বিদেশ থেকে টিম এনেছিলেন। এক পয়সার দুর্নীতি খুঁজে বের করতে পারেননি।

সরকারের উদ্দেশ্যে মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, গ্রামে-গঞ্জে যারা আমাদের নেতাকর্মীদের নামে বিভিন্ন ধরনের হামলা-মামলা করছে, তা অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে। কর্মীদের আঘাত করবেন না, প্রতিঘাতের সম্মুখীন হতে হবে আপনাদের।

জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের উদ্দেশে রাঙ্গা বলেন, আমি মহাসচিব হিসেবে অনুরোধ করব, জেলা, উপজেলা, মহানগর কমিটির সম্মেলন শেষ করে ফেলবেন। যারা ইতোমধ্যে শেষ করেছেন তাদের ধন্যবাদ জানাই।

তিনি বলেন, বাকি যেগুলো রয়েছে, এক মাসের মধ্যে শেষ করে কেন্দ্রে পাঠাবেন। আমাদের মধ্যে কোনো বিভেদ নেই। যারা চলে গেছেন, তারা ফিরে আসতে চাইলে আমরা স্বাগত জানাই।

দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, সকল ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে, জিএম কাদেরের নেতৃত্বে জাতীয় পার্টি ঐক্যবদ্ধ। এরশাদ বলেছিলেন, আমার মৃত্যুর পর জি এম কাদেরের নেতৃত্বে দল চলবে। আমরা সেটা করতে সক্ষম হয়েছি।

প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা বলেন, অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। তারপরও আমরা এখন ঐক্যবদ্ধ। আমরা জি এম কাদেরের নেতৃত্বে আশা-আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটাতে পারব।

প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেন, দুর্নীতি-দুঃশাসনের বিরুদ্ধে ঐক্য গড়তে হবে। ক্ষমতার পালাবদল হচ্ছে মিউজিক্যাল চেয়ারের মতো। দুটি দল ক্ষমতায় আসছে। কিন্তু মানুষের আশার প্রতিফলন হচ্ছে না। তারা জাপার প্রতি তাকিয়ে আছে।

 

সারাদিন/২৮ ডিসেম্বর/টিআরএস