কাজাখস্তানে বিমান বিধ্বস্তে নিহত বেড়ে ১৪, আহত ৩৫

আন্তর্জাতিক ডেস্কআন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৩৫ অপরাহ্ণ, ২৭/১২/২০১৯

কাজাখস্তানে ১০০ আরোহী যাত্রী নিয়ে একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ১৪ জন । এছাড়া আহত হয়েছে আরও অন্তত ৩৫ জন। খবর বিবিসির।

শুক্রবার (২৭ ডিসেম্বর) স্থানীয় সময় সকালে বেক এয়ারের ওই বিমানটি আলমাটি বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নের পর এ দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।

বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, জরুরি সেবা কর্মীরা ঘটনাস্থলে এসেছেন এবং ১৪ জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। জীবিতদের সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। তারা জানিয়েছে, আহত ৩৫ জনকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আহতদের মধ্যে আটজন শিশুও রয়েছে।

আলমাটির বিমানবন্দর জানিয়েছে, যে বিমানটিতে ৯৫ জন যাত্রী এবং পাঁচজন ক্রু ছিলেন।

এদিকে রয়টার্সের একজন প্রতিবেদক বলেছেন, দুর্ঘটনাস্থলের কাছে খুব কুয়াশা ছিল। তবে কী কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটে তা এখনও জানা যায়নি।

জানা গেছে, বেক এয়ারলাইন্সের একটি যাত্রীবাহী জেট বিমান শুক্রবার সকালে আলমাতি বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়ন করে। কিছুক্ষণ পরই বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। এটি আলমাতি শহর থেকে দেশটির রাজধানী নুরসুলতানের উদ্দেশে যাচ্ছিল। পথে বিধ্বস্ত হয়ে পড়ে। এতে তাৎক্ষণিকভাবে অন্তত ৯ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

আলমাতি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়, শুক্রবার সকাল ৭টা ২২ মিনিটে বিমানটি উড্ডয়নের পর স্থানীয় সময় বিমানের ডানা একটি কনক্রিটের সঙ্গে ধাক্কা খায়। সঙ্গে সঙ্গে দোতলা একটি ভবনের ওপর বিধ্বস্ত হয়ে পড়ে বিমানটি। বিমানটিতে ৯৫ জন যাত্রী ও ৫ জন ক্রু ছিলেন।

অন্যদিকে কাজাখস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে তারা জানতে পেরেছেন যে নিহতদের মধ্যে ছয়জন শিশুও রয়েছে।

কাজাখস্তানের রাষ্ট্রপতি কাসিম-জোমার্ট তোকায়েভ ক্ষতিগ্রস্থদের স্বজনদের প্রতি গভীর গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।

সারাদিন/২৭ডিসেম্বর/টিআর