‘সরকার এ পর্যন্ত আইসিটি সেক্টরে ১০ লাখ লোকের কর্মসংস্থান করেছে’

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিবেদকতথ্যপ্রযুক্তি প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৯:৩০ পূর্বাহ্ণ, ২০/১১/২০১৯

সরকার চায় তরুণরা শুধু চাকরির পেছনে না ছুটে, সফল উদ্যোক্তা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তিনি বলেন, বতর্মান সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে কাজ করে যাচ্ছে। আমাদের সরকার এ পর্যন্ত আইসিটি সেক্টরে ১০ লাখ লোকের কর্মসংস্থান করেছে। একইসঙ্গে আগামী চার বছরে নতুন করে এ সেক্টরে আরও ১০ লাখ লোকের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করবে। এ লক্ষ্য সামনে রেখেই আমরা কাজ করছি।

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর খামারবাড়ি কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে আয়োজিত বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির তরুণ উদ্যোক্তা-পৃষ্ঠপোষক কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, একজন উদ্যোক্তা সফল হলে বহু কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। সেজন্য সরকার প্রযুক্তিনির্ভর তরুণ উদ্যোক্তা তৈরিতে সহায়তা দেবে।

পলক বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে এক হাজার স্টার্টআপ তৈরিতে সরকার সহায়তা করবে। সফল উদ্যোক্তারাই গড়বে ডিজিটাল বাংলাদেশ। সেজন্য বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির এ উদ্যোগকে স্বাগত জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মাইকেল প্যাট্রিক ফোলি বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বলেন, এ ধরনের উদ্যোগ দেশকে উন্নয়নের অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে সহায়তা করবে। বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির চেয়ারম্যান কাজী জামিল আজহারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইউএস মার্কেট এক্সেসের সিইও ক্রিস বারি।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন স্টার্টআপ এক্সিলারেটর বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির উপদেষ্টা টিনা জাবিন। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির নতুন উদ্ভাবক-উদ্যোক্তা ছাড়াও ইউনিভার্সিটির প্রতিনিধি ও ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।