ডাকসুতে ভাঙচুর-হামলার ঘটনায় থানায় মামলা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদে (ডাকসু) ভাঙচুর ও সহ সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর সহ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতাকর্মীদের উপর হামলার ঘটনায় রাজধানীর শাহবাগ থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৪ ডিসেম্বর) শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রইচ উদ্দীন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। আর এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান।

থানা থেকে জানা গেছে, মামলায় আসামি হিসেবে আটজনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। তারা হলেন, মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক আল মামুন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) শাখার সভাপতি এ এস এম সনেট, সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আরাফাত তূর্য, এ এফ রহমান হল শাখা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক ইমরান সরকার, কবি জসিম উদ্দিন হল শাখার সাধারণ সম্পাদক ইয়াদ আল রিয়াদ (হল থেকে অস্থায়ী বহিষ্কৃত), জিয়া হল শাখা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম মাহিম ও মাহবুব হাসান নিলয়। এছাড়া অজ্ঞাতনামা আসামি হিসেবে ৩০/৩৫ জনকে দেখানো হয়েছে।

এদিকে ডাকসু ভবন ও মধুর ক্যান্টিন এলাকায় ভিপি নুর ও তাঁর সহযোগীদের ওপর হামলার ঘটনা তদন্তে ছয় সদস্যের কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক আবু দেলোয়ার হোসেনকে আহ্বায়ক করে গঠিত কমিটিকে ছয় কার্যদিবসের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে সুপারিশসহ প্রতিবেদন দিতে কমিটিকে অনুরোধ করা হয়েছে।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন শামসুন নাহার হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. সুপ্রিয়া সাহা, সিনেট সদস্য অধ্যাপক ড. অসীম সরকার, স্যার পি জে হার্টগ ইন্টারন্যাশনাল হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মো. মহিউদ্দিন, সিন্ডিকেট সদস্য ড. মো. মিজানুর রহমান ও সহকারী প্রক্টর অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ মাঈনুল করিম।

উল্লেখ্য রোববার (২২ ডিসেম্বর) সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ভবনে ভিপি নুরুল হক নুর এবং অন্যদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। এতে নুর ও ফারাবীসহ অন্তত ২৫ জন আহত হন।

সারাদিন/২৪ডিসেম্বর/টিআর