দিল্লির জামে মসজিদে জুমার নামাজের পরে হাজারো মানুষের বিক্ষোভ

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ৭:০৬ অপরাহ্ণ, ২০/১২/২০১৯

ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদে উত্তাল পুরো দেশ। প্রায় সব রাজ্যেই এই বিলের প্রতিবাদে কারফিউসহ বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে স্বতঃস্ফূর্তভাবে বিক্ষোভ করছে জণগন। শুক্রবার (২০ ডিসেম্বর) বিলের প্রতিবাদে দেশটির ঐতিহাসিক জামে মসজিদ থেকে দলিতদের সংগঠন ভীম আর্মির প্রধান চন্দ্রশেখর আজাদের নেতৃত্বে বিশাল মিছিল বের হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজ জানায়, শুক্রবার (২০ ডিসেম্বর) জুমার নামাজ শেষ হওয়ার পর কয়েক হাজার মানুষ বিক্ষোভ প্রদর্শন শুরু করেন। এই বিক্ষোভের নেতৃত্ব দেন ভীম সেনার প্রধান চন্দ্রশেখর আজাদ। এসময় তার হাতে ছিল ভারতীয় সংবিধানের একটি প্রতিলিপি।

জামে মসজিদ থেকে মিছিলের জন্য পুলিশের নিকট অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু দিল্লি পুলিশ মসজিদ চত্বরে বিক্ষোভ প্রদর্শন বেআইনি দাবি করে কোনো অনুমতি দেয়নি।

পরে শুক্রবার সকাল থেকেই নিরাপত্তার কারণে পরিচয়পত্র চেক করে মসজিদে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হয়। পুলিশ দাবি করে, তখন অনেক বিক্ষোভকারীও পরিচয়পত্র প্রদর্শন করে প্রবেশ করেছিল। ভীম আর্মি প্রধান চন্দ্রশেখর আজাদ যেন মসজিদে প্রবেশ করতে না পারেন তার জন্য প্রচুর পুলিশ মোতায়েন ছিল। কিন্তু পুলিশকে ফাঁকি দিয়ে জামা মসজিদের সমাবেশে প্রবেশ করেন চন্দ্রশেখর।

জামে মসজিদের গেট বন্ধ করে বিক্ষোভকারীদের আটকানোর চেষ্টা করেছিল পুলিশ। কিন্তু বিশাল জনস্রোতের সামনে পুলিশি বাধা কার্যত অচল হয়ে যায়। জামে মসজিদ থেকে বেরিয়ে সবাই রাস্তায় মিছিল করতে থাকে। এসময় দরিয়াগঞ্জের কাছে চন্দ্রশেখরকে আটক করে পুলিশ। তবে চন্দ্রশেখরকে আটক করে রাখতে পারেনি পুলিশ। পুলিশের ভ্যানে তোলার আগেই পুলিশের হাত ফঁসকে পুনরায় মিছিলে প্রবেশ করেন তিনি।

সারাদিন/২০ডিসেম্বর/টিআর