প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষ নিলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন

আন্তর্জাতিক ডেস্কআন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ৩:০১ অপরাহ্ণ, ২০/১২/২০১৯

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন যুক্তরাজ্যের কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অভিশংসন করার তীব্র সমালোচনা করেছেন। পুতিন এই অভিশংসনের অভিযোগটিকে চরম মিথ্যা বলে অভিহিত করেছেন।

এই প্রক্রিয়ায় ট্রাম্প টিকে যাবেন বলেও আশা প্রকাশ করেন পুতিন। বৃহস্পতিবার (১৯ ডিসেম্বর) মস্কোয় বার্ষিক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) সংখ্যাগরিষ্ঠের ভোটে নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে চূড়ান্ত অভিশংসনের জন্য দেশটির উচ্চকক্ষ সিনেটে প্রস্তাব উঠবে। সেখানে দুই তৃতীয়াংশ ভোটে অভিশংসিত হলে প্রেসিডেন্ট পদ ছাড়তে হবে ট্রাম্পকে। তবে ডেমোক্র্যাট নিয়ন্ত্রিত প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হলেও রিপাবলিকান নিয়ন্ত্রিত সিনেটে ট্রাম্পের দোষী প্রমাণিত হওয়ার আশঙ্কা কম।

বৃহস্পতিবার (১৯ ডিসেম্বর) ট্রাম্পের পক্ষ নিয়ে ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ডেমোক্র্যাটরা ২০১৬ সালের নির্বাচনের পরাজয় কাটিয়ে উঠতে ভিন্ন উপায় বেছে নিয়েছে।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনে হেরে যাওয়া ডেমোক্র্যাট দল অন্য উপায়ে ফল পেতে চাইছে। ট্রাম্পকে রাশিয়ার সঙ্গে যোগসাজশের অভিযোগ আনা হলো, তাতে কাজ হলো না, কোনও ষড়যন্ত্রই হয়নি’।

পুতিন বলেন, ওই অভিযোগে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন প্রক্রিয়া এগিয়ে নেওয়া গেলো না আর এখন ইউক্রেনের ওপর চাপের অভিযোগ এনে তাকে অভিশংসন করা হলো।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ ছিল বলে দাবি করে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো। অভিযোগ ওঠে,ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের ক্ষতি করার এবং ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভাবমূর্তি বড় করার চেষ্টা করে রাশিয়া। তবে মস্কো ওই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে। অভিযোগের ভিত্তিতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে অভিযুক্ত করার চেষ্টা হলেও তা আর অভিশংসন প্রক্রিয়া পর্যন্ত যায়নি।

তবে সম্প্রতি ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ট্রাম্পের ফাঁস হওয়া ফোনালাপে দেখা যায়, সাবেক মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও তার ছেলে হান্টার বাইডেনের বিরুদ্ধে তদন্তের জন্য ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টকে রীতিমতো চাপ দিচ্ছেন ট্রাম্প।

ওই ফোনালাপের ভিত্তিতে গোয়েন্দা সংস্থার একজন সদস্য আনুষ্ঠানিক অভিযোগ করার পর ট্রাম্পের অভিশংসনের দাবি সামনে আসে। সেই দাবি অনুসারে আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ করে প্রতিনিধি পরিষদে ভোটাভুটিতে বুধবার অভিশংসিত হন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

সারাদিন/২০ডিসেম্বর/টিআর