‘বর্তমান প্রজন্মের দায়িত্ব আগামী প্রজন্মের নিকট সাংস্কৃতিক মূল্যবোধ পৌঁছে দেওয়া’

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৫:৫৬ অপরাহ্ণ, ১৯/১২/২০১৯

সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি বলেছেন, আমাদের বাঙালি সংস্কৃতি হাজার বছরের ঐতিহ্যবাহী ও সমৃদ্ধ। আমাদের মহান ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধে প্রেরণা যুগিয়েছে বাঙালির অসাম্প্রদায়িক সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও চেতনা। বর্তমান প্রজন্মের দায়িত্ব এ সাংস্কৃতিক চেতনা ও মূল্যবোধ আগামী প্রজন্মের নিকট পৌঁছে দেয়া।

প্রতিমন্ত্রী বুধবার (১৯ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে প্রতিশ্রুতিশীল শিল্পীদের বিভিন্ন কর্মসূচির উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথি বলেন, ললিতকলা, চারুকলা ও সংস্কৃতির বিশেষ ক্ষেত্রে উৎকর্ষ সাধনের উদ্দেশ্যে শিল্পীদের জন্য প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণ, প্রতিভাবান শিল্পীদের জন্য বৃত্তি প্রদানের ব্যবস্থা করা এবং প্রতিভাবান শিল্পিতের অনুসন্ধান করে প্রতিভা বিকাশের সুযোগ সৃষ্টি করা বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ কাজ। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি এর ওপর অর্পিত দায়িত্বের অংশ হিসাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে প্রতিশ্রুতিশীল শিল্পীদের মেধা বিকাশ ও পরিপূর্ণ শিল্পী হিসাবে প্রতিষ্ঠা পাওয়ার লক্ষ্যে বছরব্যাপী যে কর্মসূচি হাতে নিয়েছে তাকে আমি স্বাগত জানাই। অআশা করছি, এ কর্মসূচির মাধ্যমে এসব প্রতিশ্রুতিশীল শিল্পীদের মধ্য হতে অআমাদের আগামী দিনে সাবিনা ইয়াসমিন ও রুনা লায়লার মত খ্যাতিমান শিল্পীরা বেরিয়ে আসবে।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দেশবরেণ্য জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন। শুভেচ্ছা বক্তৃতা করেন সংগীত পরিচালক চন্দন দত্ত।

অনুষ্ঠানে সাবিনা ইয়াসমিন উপস্থিত প্রতিশ্রুতিশীল শিল্পীদের উদ্দেশ্যে ‘জন্ম আমার ধন্য হলো মাগো’ এবং ‘রেললাইনের ধারে মেঠো পদ্মার পারে দাঁড়িয়ে’ গান দুইটি গেয়ে শোনান।

সারাদিন/১৯ ডিসেম্বর/আরটি