নতুন ফাইভজি ‘অ্যাক্সন স্মার্টফোন’ উন্মোচনের ঘোষণা জেডটিই’র

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিবেদকতথ্যপ্রযুক্তি প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৩৫ অপরাহ্ণ, ১৯/১২/২০১৯

সম্প্রতি নিজেদের নতুন ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন জেডটিই অ্যাক্সন ১০এস প্রো উন্মোচনের ঘোষণা দিলো মোবাইল ইন্টারনেটে টেলিযোগাযোগ, এন্টারপ্রাইজ ও কনজ্যুমার প্রযুক্তি সেবাদানে বৈশ্বিকভাবে শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠান জেডটিই করপোরেশন। ফোনটি ফাইভজি এসএ এবং এনএসএ উভয় মোডের সাথে সামঞ্জসপূর্ণ। ডিভাইসটি ২০২০ সালের প্রথম প্রান্তিকে বাণিজ্যিকভাবে চীনে উন্মুক্ত করা হবে। মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে ফোনটিতে থাকছে অ্যান্ড্রয়েড ১০, প্রসেসর হিসেবে রয়েছে নতুন ফ্ল্যাগশিপ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ ফাইভ জি মোবাইল প্ল্যাটফর্ম যা বিশ্বের অত্যাধুনিক ফাইভ জি মোবাইল প্ল্যাটফর্ম কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন এক্স৫৫ মডেম-আরএফ সিস্টেমের ফিচারযুক্ত।

জেডটিই অ্যাক্সন ১০এস প্রো’তে রয়েছে সর্বাধুনিক ওয়াই-ফাই ৬ প্রযুক্তি, যা ব্যবহারকারীদের ১.২ গিগাবাইট (ল্যাবরেটরি পরীক্ষার তথ্য অনুযায়ী) পর্যন্ত অবিশ্বাস্য গতি দিবে, নিশ্চিত করবে কম ল্যাটেন্সি। এমনকি যেখানে লিমিটেড নেটওয়ার্কে অনেকেই একসাথে ডিভাইস শেয়ার করেন এ পরিস্থিতিতেও অ্যাক্সন ১০এস প্রো দিবে অত্যাশ্চর্য গতি।

এছাড়াও, জেডটিই অ্যাকসন ১০এস প্রো একাধিক নেটওয়ার্কে যুক্ত করা যাবে। যেমন ব্যবহারকারী নেটওয়ার্কের স্থিতাবস্থা ও দ্রæতগতির জন্য ফোনটিকে একইসাথে ২.৪ গিগাহার্টজ এবং ৫ গিগাহার্টজ দু’টি ওয়্যারলেস নেটওয়ার্কে যুক্ত করতে পারবেন।

লিঙ্ক-বুস্টার নেটওয়ার্ক এনহান্সমেন্ট সল্যুশনের কারণে জেডটিই অ্যাক্সন ১০এস প্রো ওয়াই-ফাই সিগন্যাল থেকে এলটিই কিংবা ফাইভ জি নেটওয়ার্কে সহজেই সুইচ করা যাবে। সিগন্যালের জটিলতর অবস্থায় সেলফ ডেভলপড হাই-স্পিড অ্যালগরিদম ও স্মার্ট পারসেপশনের মাধ্যমে ইন্টেলিকজেন্ট রেসপন্স প্রদান করে। নেটওয়ার্ক ব্যবহারযোগ্য কী না ডিভাইসটি তা নিরীক্ষা করে উন্নত ইন্টারনেট অভিজ্ঞতা ও কম ল্যাটেন্সির জন্য স্বয়ংক্রিয়ভাবে এলটিই বা ফাইভ জি ডাটা কানেকশনে স্থানান্তরিত করবে।

সর্বশেষ স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ মোবাইল প্ল্যাটফর্মের পাশাপাশি স্মার্টফোনটিতে সর্বশেষতম এলপিডিডিআর ৫ র‌্যাম মেমোরি এবং ইউএফএস ৩.০ রম স্টোরেজও রয়েছে যা উচ্চতর অপারেটিং দক্ষতা এবং দ্রæত পড়ার / লেখার গতি সরবরাহ করে।
অত্যাধুনিক স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ মোবাইল প্ল্যাটফর্ম ছাড়াও, স্মার্টফোনটিতে থাকছে অত্যাধুনিক এলপিডিডিআর৫ র‌্যাম মেমোরি ও ইউএফএস৩.০ রম স্টোরেজ যা কোনো কিছু পড়া বা লেখার ক্ষেত্রে নিশ্চিত করবে দ্রæতগতি।
এ নিয়ে জেডটিই করপোরেশনের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং জেডটিই’র মোবাইল ডিভাইস ডিভিশনের প্রেসিডেন্টে শু ফেং বলেন, ‘ব্যবহারকারীরা যেনো ফাইভ জি’র উন্নত অভিজ্ঞতা লাভ করতে পারে এ জন্য বিশ্বজুড়েই ফাইভ জি ডিভাইসের প্রচারণায় সক্রিয়ভাবে কাজ করছে জেডটিই। ফাইভ জি অ্যাপ্লিকেশন ক্ষেত্রে গ্রাহকদের ক্রমবর্ধমান চাহিদা মেটাতে আমরা নানা ধরনের ফাইভ জি টার্মিলান

ডিভাইস নিয়ে আসবো।’ তিনি আরও বলেন, ‘২০২০ সালে জেডটিই ১৫টির বেশি ফাইভ জি টার্মিনাল নিয়ে আসবে। যার মধ্যে ১০টির কাছাকাছি হবে ফাইভ জি স্মার্টফোন। জেডটিই অ্যাক্সন ১০এস প্রো ছাড়াও, পরবর্তী প্রজন্মের ফাইভ জি স্মার্টফোনের ঘোষণা দিবে জেডটিই। আগামী বছরের প্রথম প্রান্তিকেই উন্মোচন হবে এ ফোনের। সাশ্রয়ী এ ফোনের দাম হবে তিন হাজার আরএমবি (চীনের মুদ্রা) এর চেয়ে কম।’

এছাড়াও, জেডটিই অ্যাক্সন ১০এস প্রো’তে রয়েছে নতুন প্রজন্মের ফুল-সিন সিস্টেম অপটিমাইজেশন ইঞ্জিন জেড-বুস্টার ২.০, গেমিং ও মাল্টি টাস্কের ক্ষেত্রে ব্যবহারকারীর উন্নত অভিজ্ঞতা নিশ্চিতে যা এআই অ্যালগরিদমের উপর ভিত্তি করে সিস্টেম রিসোর্স অ্যালোকেট করে। জেড-বুস্টার ২.০ অ্যাপ্লিকেশন-বুস্টার, সিস্টেম-বুস্টার এবং লিংক-বুস্টার সহ তিনটি কার্যকরী মডিউলগুলির সমন্বয়ে গঠিত।

এখন পর্যন্ত, জেডটিই ইউরোপ, এশিয়া প্যাসিফিক, মধ্যপ্রাচ্য এবং আফ্রিকার (এমইএ) এর মতো বড় বাজারগুলোতে ৩৫টি বাণিজ্যিক ফাইভ জি চুক্তি করেছে। জেডটিই তার বার্ষিক আয়ের ১০ শতাংশ গবেষণা এবং উন্নয়নে ব্যবহারে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এবং আন্তর্জাতিক মান-নির্ধারণকারী সংস্থাগুলিতে নেতৃত্বের ভ‚মিকা পালন করে আসছে।

সারাদিন/১৯ ডিসেম্বর/আরটি