আজকের জাতীয় পর্যায়ের শীর্ষ দশ খবর

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:২৮ পূর্বাহ্ণ, ২৮/০৭/২০২০

সন্ত্রাসীদের হাতে রাজনীতির ‘চেরাগ’
ফরিদপুরের মানুষের কাছে ৭ জুন রোববারের রাতটা ছিল একেবারে অন্য রকম। রাত ১১টার পর শহরে খবর ছড়িয়ে পড়ে, বরকত ও তাঁর ভাই রুবেল গ্রেপ্তার হয়েছেন। প্রথমে কেউই বিশ্বাস করতে পারেননি। জেলা প্রশাসন আর থানা-পুলিশ যাঁদের কথায় ওঠবস করে, সেই ক্ষমতাধরেরা কেন গ্রেপ্তার হবেন? শহরজুড়ে আতঙ্ক—নতুন কেউ দখল নিতে আসছে না তো! ফরিদপুরের এক আইনজীবী নিজের চেম্বারে বসে এভাবেই দুই সহোদর গ্রেপ্তারের পর শহরের অবস্থার কথা বলছিলেন। এ ঘটনার পর ১ মাস ২০ দিন পেরিয়ে গেছে।-প্রথম আলো

আস্থা ফিরছে না চিকিৎসা সেবায়-কভিড নন-কভিড কোনো রোগী যাচ্ছে না হাসপাতালে, ভোগান্তি সীমাহীন

করোনাভাইরাস মহামারীতে দেশের সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে অব্যবস্থাপনা, প্রতারণা, ভোগান্তির কারণে হাসপাতাল বিমুখ হচ্ছে রোগীরা। করোনা আক্রান্ত রোগীরা বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছে। সব হাসপাতালে করোনা রোগী ভর্তি থাকায় হাসপাতালগুলোয় যাচ্ছেন না সাধারণ রোগীরা। আউটডোর, প্যাথলজি রোগী শূন্য হয়ে পড়েছে। চিকিৎসা সেবায় আস্থা পাচ্ছেন না রোগীরা। এ ব্যাপারে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম-বিডি প্রতিদিন

টেকসই ভবিষ্যৎ বিনির্মাণে যুবকদের সম্পৃক্ততার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সোমবার বিকালে ঢাকাকে ওআইসি যুব রাজধানী হিসেবে উদ্বোধন করেছেন। গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী ভার্চুয়ালি এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন।
কোভিড-১৯ মহামারিকালীন এবং পরবর্তীকালে টেকসই ভবিষ্যৎ বিনির্মাণে সৃজনশীল ধারণা এবং উদ্ভাবনী চিন্তা নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ায় সম্পৃক্ত হতে যুবকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-সারাদিন ডট নিউজ


সিন্ডিকেটের চাপে সরতে হচ্ছে জনতা ব্যাংক চেয়ারম্যান
কে
ব্যাংকিং খাতের আরেকটি আলোচিত ঘটনা ঘটে সোমবার। একটি ভিডিও, একজন চেয়ারম্যান এবং একটি প্রভাবশালী শিল্পগ্রুপ নিয়ে গতকালের ব্যাংকপাড়া ছিল সরব। সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলেছে, প্রভাবশালী একটি ব্যবসায়ী গ্রুপের ‘আবদার’ রক্ষা না করায় সরে যেতে হচ্ছে রাষ্ট্রায়ত্ত জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান ড. জামাল উদ্দিন আহমেদকে। ঐ শিল্পগ্রুপের সঙ্গে আরো কিছু প্রভাবশালী মিলে ‘ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট’ তাকে সরিয়ে দিতে মুখ্য ভূমিকা রেখেছে বলে তথ্য দিয়েছেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র-ইত্তেফাক

হত্যার মতোই অপরাধ
ভুয়া রিপোর্ট থেকে ভুল চিকিৎসা হয় আর ভুল চিকিৎসায় থাকে মৃত্যুর ঝুঁকি। তাই করোনাসহ যেকোনো ভুয়া বা মিথ্যা রিপোর্ট মানুষকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়ার শামিল। এই রকম একের পর এক ভয়াবহ ঘটনা ঘটেছে দেশে। পাশাপাশি নকল বা মানহীন সুরক্ষাসামগ্রীর মাধ্যমে চিকিৎসকদের মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে যাঁদের মৃত্যু ঘটেছে তাঁদের অনেকেই নকল ও মানহীন মাস্কের কারণে সংক্রমিত হয়েছিলেন বলে দাবি তোলা হয়েছে বিভিন্ন পর্যায় থেকে-কালের কন্ঠ

আর্থিক খাতে আসছে সাত সংস্কার
কোভিড-১৯ প্রেক্ষাপটে বিদেশি বিনিয়োগের সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে ব্যাংকিং খাতের বিদ্যমান নিয়মনীতি সহজ করা হচ্ছে। পাশাপাশি আরও সহজ করা হবে ‘ফরেন কারেন্ট অ্যাকাউন্ট (এফসিএ)’ খোলার পদ্ধতি। ‘দ্য ফরেন এক্সচেঞ্জ রেগুলেশন অ্যাক্ট’ সংস্কারের মাধ্যমে এটি করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সম্প্রতি অর্থ মন্ত্রণালয়ে ‘কোভিড-১৯ পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে বাংলাদেশে বিদেশি বিনিয়োগ সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টিকরণের’ লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত সভায় উল্লিখিত দুটিসহ সাতটি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে-যুগান্তর

ভ্যাকসিন নিয়ে কাল্পনিক প্রচারণা ও গুজব খণ্ডন-

মাত্র সপ্তাহখানেক আগেই নিজেদের তৈরি করোনাভাইরাস ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় পর্যায়ের পরীক্ষামূলক প্রয়োগে আশাপ্রদ সফলতার কথা জানায় অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়। কিন্তু, যুক্তরাজ্য বা সারাবিশ্বে এমন কিছু মানুষ আছেন, যারা কোনো ভ্যাকসিনে আস্থা রাখেন না। যেকোনো প্রকার টিকা গ্রহণে মানুষকে নিরুৎসাহিত বা ভীত-সন্ত্রস্ত করে তুলতেও তাদের জুড়ি মেলা ভার। এই আন্দোলনের নাম ‘অ্যান্টি- ভ্যাকসিনেশন মুভমেন্ট’। সাম্প্রতিক সময়ে অনলাইনে এবং সামাজিক গণমাধ্যমে তাদের পদচারণা ও অনুসারীর সংখ্যা বেড়েছে-বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড

শুভেচ্ছার জবাবে সবাইকে ধন্যবাদ জানালেন জয়
জন্মদিনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুভেচ্ছার জবাবে সবাইকে ধন্যবাদ দিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দৌহিত্র ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়। মঙ্গলবার প্রথম প্রহরে ফেইসবুকে তিনি লিখেছেন, “যারা বিভিন্ন মাধ্যমে আমার জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, সবাইকে ধন্যবাদ। আসলে আমার বয়স লুকানোর কোনো উপায় নেই কারণ বাংলাদেশ আর আমার বয়স একই! জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।”-বিডি নিউজ

করোনায় কমেছে নতুন নোটের চাহিদা
রোজা ও কোরবানি দুই ঈদে নতুন নোটের ব্যাপক চাহিদা বাড়ে। বাংলাদেশ ব্যাংকও ঈদের আগে নতুন নোট প্রকাশ করে।তবে করোনা ভাইরাসের কারণে নতুন নোটের চাহিদা আগের মতো নেই। বাংলাদেশ ব্যাংকের সামনে বটতলা ও গুলিস্তান মোড়ের নতুন নোটের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, রাস্তার পাশে ফুটপাতে টেবিলের উপর বিভিন্ন মূল্যমানের নতুন নোট সাজিয়ে বসে আছেন বিক্রেতারা। কিন্তু ক্রেতাদের সাড়া নেই। হাতেগোনা কয়েকজন খরিদ্দারের উপস্থিতি দেখা গেছে-বাংলানিউজ