জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ চীনের অনুরোধে কাশ্মীর নিয়ে বসছে

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:১৫ পূর্বাহ্ণ, ১৭/১২/২০১৯

চীনের অনুরোধে ভারতের বিতর্কিত অঞ্চল কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য মিলিত হচ্ছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। আর বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছেন, কূটনীতিকরা বলেছেন, আগস্টে একই ধরনের এক বৈঠকের পর মঙ্গলবার (১৭ ডিসেম্বর) ফের কাশ্মীর নিয়ে রুদ্ধদ্বার বৈঠক হবে।

ভারত জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করার পর পাকিস্তানের মিত্র চীনের আহ্বানেই ।আগস্টের বৈঠকটি হয়েছিল।

ফের উত্তেজনা বাড়তে পারে, এমন আশঙ্কা প্রকাশ করে ১২ ডিসেম্বর নিরাপত্তা পরিষদের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশি।

রয়টার্সের প্রত্যক্ষ করা নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যদের কাছে পাঠানো এক নোটে চীনের জাতিসংঘ মিশন লিখেছে, ‘ফের উত্তেজনার বৃদ্ধির ঝুঁকি ও পরিস্থিতির গুরুত্বকে সামনে রেখে, চীন পাকিস্তানের অনুরোধের পুনারাবৃত্তি করে জম্মু ও কাশ্মীরের পরিস্থিতির ওপর কাউন্সিলের একটি ব্রিফিংয়ের জন্য অনুরোধ করছে।

বৈঠকটি মঙ্গলবারই (১৭ ডিসেম্বর) হচ্ছে বলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে নিশ্চিত করেছেন কূটনীতিকরা।

কাশ্মীর নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। উভয় দেশ পুরো কাশ্মীরের মালিকানা দাবি করে আসলেও নিজ নিজ দখলে থাকা অংশ শাসন করছে। কাশ্মীর নিয়ে যুদ্ধে জড়ানোর পর জম্মু ও কাশ্মীর অঞ্চলে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে যুদ্ধবিরতি পর্যবেক্ষণ করতে সেই ১৯৪৯ সাল থেকে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী মোতায়েন আছে।

তারপরও দেশ দুটি কাশ্মীর নিয়ে আরও দুটি লড়াইয়ে জড়িয়েছে। কয়েক দশক ধরে ভারত কাশ্মীরের নিজেদের নিয়ন্ত্রিত অংশে বিচ্ছিন্নতাবাদী লড়াই মোকাবিলা করছে। এই লড়াইয়ের ইন্ধন দেওয়ার জন্য পাকিস্তানকে দায় দিয়েছে তারা। কিন্তু পাকিস্তান জম্মু ও কাশ্মীরের অহিংস বিচ্ছিন্নতাবাদীদের শুধু নৈতিক সমর্থন দেওয়া হচ্ছে বলে দাবি করেছে।

সারাদিন/১৭ডিসেম্বর/টিআর