ঝিনাইদহে চুরির অভিযোগে শিশু নির্যাতন, মালিক গ্রেফতার

ঝিনাইদাহ প্রতিনিধি:ঝিনাইদাহ প্রতিনিধি:
প্রকাশিত: ৩:০৮ অপরাহ্ণ, ২৯/০৬/২০২০

দোকান থেকে টাকা চুরির অভিযোগ জেলার হরিণাকুণ্ডু উপজেলার জটারখালী বাজারের এক ফার্মেসি মালিকের নির্যাতনে জিসান (১১) নামে এক শিশু গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছে। শিশুটিকে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে।

নির্যাতনের অভিযোগে পুলিশ মামুন নামে ফার্মেসি মালিককে গ্রেপ্তার করেছে। মামুন উপজেলার জোড়াদহ গ্রামের শামছুল আলমের ছেলে। নির্যাতিত জিসান একই গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে। এ ঘটনায় থানায় শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, মামুনের উপজেলার জটারখালি বাজারে ওষুধের ফার্মেসি আছে। জিসান তার ফার্মেসির কর্মচারী। শনিবার সকালে দোকানের ৩ হাজার টাকা চুরি হওয়ায় জিসানকে অভিযুক্ত করে মামুন তার হাত-পা বেঁধে মারধর করে। এ সময় স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশ ওই শিশুকে হাত পা বাধা অবস্থায় উদ্ধার ও মামুনকে আটক করে।

জিসানের বাবা খলিলুর রহমান জানান, তার ছেলে দীর্ঘদিন মামুনের ওষুধের দোকানে কাজ করছে। কোনদিন তার বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ ওঠেনি। শনিবার সকালে তার ছেলেকে মাত্র ৩ হাজার টাকা চুরির অভিযোগ তুলে নির্যাতন করা হয়।

শিশু জিসান দাবি করেছে, সে টাকা চুরি করেনি। তাকে মিথ্যা চুরির অপবাদ দিয়ে হাত-পা বেঁধে মারধর করেছে ফার্মেসি মালিক মামুন। অভিযুক্ত দোকানি মামুন বলেন, তিনি দোকান ফেলে বাইরে গিয়েছিলেন। দোকানে ফিরে দেখেন ক্যাশ বাক্সে ৩ হাজার টাকা নেই।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হরিণাকুণ্ডু থানার উপ-পরিদর্শক সোহেল জানান, এ ঘটনায় শনিবার রাতে নির্যাতিত শিশুর বাবা থানায় শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন। আসামিকে কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

সারাদিন/২৯জুন/ আরএসটি