ঢাবি শিক্ষার্থী সুমাইয়া হত্যা মামলায় স্বামী ও শ্বশুরের রিমান্ড মঞ্জুর

নাটোর জেলা প্রতিনিধিঃনাটোর জেলা প্রতিনিধিঃ
প্রকাশিত: ৬:৩৩ অপরাহ্ণ, ২৬/০৬/২০২০

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নাটোরের সুমাইয়া খাতুন হত্যা মামলায় তার স্বামী মোস্তাক হোসাইন ও তার শ্বশুর জাকির হোসেনের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

শুক্রবার দুপুরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) আব্দুল মতিন তাদের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। শুনানী শেষে আদালতের বিচারক মেহেদী হাসান তাদের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জানান, হত্যা মামলার অধিকতর তদন্তের স্বার্থে আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। শুনানী শেষে বিকেলে আদালতের বিচারক তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আজ থেকেই তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

উল্লেখ্য, গত ২২ জুন সুমাইয়া খাতুনকে সদর হাসপাতালে মৃত অবস্থায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায় তার শ্বশুর বাড়ীর লোকজন। এ ঘটনায় নিহত সুমাইয়ার মা নুজহাত বেওয়া বাদী হয়ে সুমাইয়ার স্বামী, শ্বশুর ,শ্বাশুড়ী ও ননদের নামে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর শহরের বড়হরিশপুর বাগানবাড়ী এলাকা থেকে সুমাইয়ার শ্বাশুড়ী সৈয়দা মালেকা ও ননদ জাকিয়া ইয়াসমিন যুথিকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করেন।

এরপর মামলার অন্য আসামী মোস্তাক ও জাকির হোসেনকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশ ৮টি টিম গঠন করে বিভিন্নস্থানে অভিযান চালায়। অভিযানকালে গতকাল বৃহস্পতিবার বগুড়ার নন্দীগ্রাম থেকে প্রধান আসামী সুমাইয়ার স্বামী মোস্তাক হোসেন ও রাজশাহীর বাঘা থেকে তার শ্বশুর জাকির হোসেনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।