শুভ জন্মদিন চঞ্চল চৌধুরী

বিনোদন প্রতিবেদকবিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৪:২৭ অপরাহ্ণ, ০১/০৬/২০২০

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জয়ী অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরীর জন্মদিন আজ (সোমবার)। শক্তিমান এই অভিনেতার ৪৬ তম জন্মদিনে সারাদিন ডট নিউজের পক্ষ থেকে অভিনন্দন। আগামীর দিনগুলোতে আরও ভালো ভালো কাজ যেন আমাদের উপহার দিতে পারে সেই প্রত‍্যাশা।

মনপুরা, মনের মানুষ, টেলিভিশন, আয়নাবাজি, দেবীর মত সিনেমা দিয়ে দর্শক মাতিয়েছনে তিনি। এরমধ্যে মনপুরা ও আয়নাবাজি সিনেমার জন্য পেয়েছিল জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার নজিরগঞ্জ ইউনিয়নের কামারহাট গ্রামে ১৯৭৪ সালের ১ জুন জন্মগ্রহণ করেন চঞ্চল চৌধুরী। গ্রামের স্কুল থেকে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক এবং রাজবাড়ী সরকারি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিকে পড়াশোনা করেন। উচ্চ মাধ্যমিক শেষ করার পর তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলায় ভর্তি হন।

ছোটবেলা থেকেই তার গানবাজনা, আবৃত্তি আর নাটকের প্রতি নেশা ছিল। পরে তার মঞ্চনাটকের প্রতি একটা আগ্রহ সৃষ্টি হয়। মামুনুর রশীদের আরণ্যক নাট্যদলে কাজ করার মধ্যদিয়েই অভিনয় জীবনের শুরু হয়। মামুনুর রশীদের লেখা ‘সুন্দরী’ নাটকে ছোট একটি চরিত্রে তিনি প্রথম অভিনয় করেন। তিনি বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্র বাজানো, অভিনয়, গান, ছবি আঁকা এসব কিছুতেই সমান পারর্দশী।

মোস্তফা সরয়ার ফারুকী ‘তাল পাতার সেপাই’ নাটক দিয়ে দর্শকের কাছে পরিচিত হয়ে ওঠেন এ মঞ্চ অভিনেতা। তারপর থেকেই তিনি মঞ্চের পাশাপাশি বিরামহীন কাজ করে যাচ্ছেন টিভি নাটকে। তিনি ২০০৯ সালে গিয়াস উদ্দিন সেলিম পরিচালিত ‘মনপুরা’ ছবিতে এবং মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত টেলিভিশন ছবিতে অভিনয় করে প্রশংসিত হন। ‘আয়নাবাজি’ ও সর্বশেষ দেবী সিনেমাতে দর্শকের মন জয় করেন তিনি।

সম্প্রতি আয়নাবাজির চরিত্রগুলো নিয়ে তিন পর্বের একটি সিরিজি নির্মাণ করেছেন অমিতাভ রেজা। যেখানে চঞ্চল চৌধুরী হাজির হয়েছেন একটু ভিন্নভাবে।এখানে করোনা রোগীর চরিত্রে অভিনয় করে সবাইকে চমকে দিয়েছেন তিনি। করোনায় আক্রান্ত হয়ে নতুন করে আলোচনায় এসেছে আয়নাবাজির চঞ্চল চৌধুরী।

সারাদিন/১জুন/এএইচ