জাতীয় প্রেসক্লাবে ১১ দফা দাবিতে পাটকল শ্রমিকদের বিক্ষোভ সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিনিধিনিজস্ব প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ২:২০ অপরাহ্ণ, ১৩/১২/২০১৯

খুলনায় পাটকল শ্রমিক আব্দুস সাত্তারের মৃত্যুর প্রতিবাদ ও পাটকল শ্রমিকদের বকেয়া বেতন পরিশোধ সহ ১১ দফা দাবিতে কালো পতাকা মিছিল ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশন।

শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) রাজধানীর পুরানা পল্টন মোড় থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে তারা এই কর্মসূচি পালন করেন। মিছিল শেষে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন নেতারা।

সমাবেশে জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আমিরুল হক আমিন বলেন, খুলনায় অনশন রত প্লাটিনাম জুট মিলের শ্রমিক আব্দুস সাত্তারের মৃত্যুর দায় সরকার এড়াতে পারে না। এর দায়ভার লাঘব করার জন্য অবিলম্বে অনশনরত পাটকল শ্রমিকদের বকেয়া মজুরি পরিশোধ, পাটকল শ্রমিকদের জন্য ঘোষিত মজুরি কমিশনের রোয়েদাদ বাস্তবায়ন, পাটকলগুলোর আধুনিকীকরণ করতে হবে। আর এর মাধ্যমে লাভজনক শিল্পে পরিণত করা সহ ১১ দফা দাবি মেনে নেওয়া ও বাস্তবায়নের জন্য সরকারের প্রতি দাবি আহ্বান জানাই।

নেতৃবৃন্দরা বলেন, এই সরকার নিজেদেরকে শ্রমিকবান্ধব সরকার দাবি করলেও পাটকল শ্রমিকদের ১৬ সপ্তাহের মজুরি বাকি। মজুরি না পাওয়ার কারণে পাটকল শ্রমিকেরা মানবেতর জীবনযাপন করছে। সরকারি কর্মচারীদের জন্য পে-স্কেল ঘোষণা ও বাস্তবায়ন হয়েছে ২০১৫ সাল থেকে। রাষ্ট্রায়ত্ত খাতের শ্রমিকদের জন্য মজুরি কমিশন ঘোষণা হয়েছে ২০১৫ সালে। এমনকি চিনি, খাদ্য, শিল্পসহ অন্যান্য সেক্টরে তা বাস্তবায়ন হয়েছে।

নেতারা আরো বলেন, উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে পাটকল শ্রমিকদের ২০১৫ সালে ঘোষিত মজুরি কমিশনের রোয়েদাদ এখনও বাস্তবায়ন হয়নি। তাই অবিলম্বে বকেয়া মজুরি পরিশোধ, মজুরি কমিশনের রোয়েদাদ বাস্তবায়নসহ ১১ দফা কার্যকর করার দাবি জানাচ্ছি।

সমাবেশে ছিলেন ফেডারেশনের যুগ্ম সম্পাদক এম দেলোয়ার হোসেন, কেন্দ্রীয় নেতা মোহাম্মদ আনোয়ার আলী, মিস সাফিয়া পারভীন, গোলাম ফারুক, আরিফা আক্তার ও মোহাম্মদ রাসেল আহমেদ প্রমুখ।

সারাদিন/১৩ডিসেম্বর/আর