ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের জন্য বিনামূল্যে অনলাইন ‘শপস’ চালু করলেন মার্ক জাকারবার্গ

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ৪:৪০ অপরাহ্ণ, ২০/০৫/২০২০

ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের জন্য বিনামূল্যে অনলাইন ‘শপস’ চালু করলেন মার্ক জাকারবার্গ। করোনা ভাইরাসের কারণে সৃষ্ট বৈশ্বিক সংকটে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের কথা মাথায় ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম তথা মার্কেটপ্লেস চালু করেছে প্রতিষ্ঠানটি। এটির নাম দিয়েছে ‘ফেসবুক শপস’। এই প্ল্যাটফর্মে ছোট ব্যবসায়ী বা উদ্যোক্তারা তাদের অনলাইন শপ চালু করতে পারবেন। এই উদ্যোগটি সম্পূর্ণ বিনা খরচে এবং খুব সহজে চালু করা যাবে।

ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ মঙ্গলবার দিবাগত রাতে এক ফেসবুক পোস্টে এই তথ্য জানিয়েছেন। তিনি তার ফেসবুক পোস্টে লেখন, আমরা আজই ‘ফেসবুক শপস’ চালু করতে যাচ্ছি। এর মূল ধারণাটি হচ্ছে যেকোনও ছোটো ব্যবসাই আমাদের অ্যাপ দিয়ে জিনিসপত্র সরাসরি বিপণীর (শপ) মাধ্যমে বিক্রি করা যাবে। আপনি যদি কারও শপ ঘুরে দেখেন তাহলে আপনি তার ব্যবসায়িক ক্ষেত্রটি দেখতে পারবেন। দেখতে পারবেন তার পণ্যগুলো এবং সেইসঙ্গে আমাদের অ্যাপের মাধ্যমে তা কিনতেও পারবেন।

আমি মনে করি বর্তমানে এটি এখন বেশ গুরুত্বপূর্ণ। কেননা কোভিড-১৯-এর কারণে যে অর্থনৈতিক মন্দা শুরু হয়েছে তাতে অনেক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ই টিকে থাকার জন্য অনলাইনে চলে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে সবাইকেই বলা হচ্ছে ঘরে থাকতে। স্বশরীরে বাইরে থেকে কাজ করাটা এখন খুবই কঠিন একটি বিষয় এবং এ কারণে লাখ লাখ মানুষ চাকরি হারাচ্ছে। আমি ব্যক্তিগতভাবে কয়েকমাস প্রতিদিনই ফেসবুক শপস টিমের সঙ্গে কাজ করছি, যারা এখন ছোটো কোনও ব্যবসা এই ধরনের টুল ব্যবহার করে করতে চাইবে তাদের জন্য যাতে করে এটাকে দ্রুত উন্মোচন করা যায়।

ফেসবুক শপসটি বিনামূল্যে চালু করা যাবে এবং সহজেই এটিকে তৈরি করা যায়। যখন আপনি ‘শপ সেটআপ’ করবেন তখন এটি আপনার ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে চলে আসবে। খুব শিগগিরই এটি মেসেঞ্জার এবং হোয়াটসঅ্যাপেও চলে আসবে। শিগগিরই এটাতে আমরা নতুন লাইভ শপিং ফিচারও চালু করতে যাচ্ছি যা আপনাকে রিয়েল টাইমে লাইভ শপিংয়ের অভিজ্ঞতা দেবে। আমরা শপিফাই, বিগকমার্স, উ-কমার্স, চ্যানেল অ্যাডভাইজার, সেডকমার্স, ক্যাফে২৪, টিয়েন্ডা নুবি ও ফিডনোমিকস ইত্যাদি পার্টনারদের সঙ্গে কাজ করছি।

আমরা ইনস্টগ্রামের জন্য একটি ডেডিকেটেড শপিং ট্যাব তৈরি করতে যাচ্ছি। এতে থাকবে দিক নির্দেশনা যার মাধ্যমে ক্রেতারা তার পছন্দের পণ্য কিনতে পারবেন। এর পাশাপাশি খুব শিগগিরই আমরা ফেসবুক ও ইনস্টগ্রামে লাইভ শপিং ফিচার আনছি যার মাধ্যমে ক্রেতারা রিয়েল টাইমে লাইভ কেনাকাটা করতে পারবেন।

নিকট ভবিষ্যতে আরও ভালো শপিং অভিজ্ঞতার জন্য আমরা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও অগমেন্টেড রিয়েলিটি ফিচারও চালু করতে যাচ্ছি। আমরা ফিডসে স্বয়ংক্রিয়ভাবে পণ্য শনাক্ত ও ট্যাগ করার ব্যবস্থা করবো যার মাধ্যমে ক্রেতারা সহজেই ক্লিকের মাধ্যমে সরাসরি তা কিনতে পারেন। ছোট ব্যবসায়ে শপকে নিজের মতো করে কাস্টমাইজ করার ব্যবস্থা থাকছে যেখানে একজন আগমেন্টেড রিয়েলিটি ব্যবহার করে পণ্য কেনার আগে বিভিন্ন পণ্যের বাস্তব অভিজ্ঞতা যেমন চশমা, লিপস্টিকে বা মেকআপ করলে ক্রেতাকে কেমন দেখাবে তা জেনে নিতে পারবেন। একটি ফার্নিচার ক্রেতার ঘরে কেমন দেখাবে সেটাও প্রদর্শনের ব্যবস্থা থাকবে।

এসব মিলিয়ে এই প্ল্যাটফর্মটি হবে বেশ শক্তিশালী। আপনি যদি ছোটও কোনও ব্যবসায়ী হয়ে থাকেন বা ছোটও কোনও ব্যবসা শুরুর পরিকল্পনা আপনার থাকে, এমনকি এই শুরুটা আপনার লিভিং রুম থেকেও হয় তাহলেও আপনার সামনে থাকবে বিশাল টুলের একটি সমাহার যার মাধ্যমে আপনি আপনার ক্রেতাকে সেবা দিতে পারবেন। আপনি ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের মাধ্যমে ক্রেতার সামনে অনলাইনে উপস্থিতিও দেখাতে পারবেন। আবার হোয়াটসঅ্যাপ ও মেসেঞ্জার ব্যবহার করেও ক্রেতাদের সঙ্গে আপনি যোগাযোগ করতে পারবেন। আমাদের দেওয়া বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে আপনি পৌঁছাতে পারবেন নতুন ক্রেতার কাছে।

ফেসবুক শপস দিয়ে এখন আপনি সম্পূর্ণ একটি অনলাইন স্টোর তৈরি করতে পারবেন। এর সব টুলই ব্যবসার জন্য উন্মুক্ত যা হয়তো আপনার বাস্তবে থাকা শপেও সম্ভব নয়। আশা করছি, এই মাধ্যম বর্তমান পরিস্থিতিতে ব্যবসায়ে আপনার দুশ্চিন্তা কমাবে। সেইসঙ্গে ভবিষ্যতের অনলাইন ব্যবসার জন্য নিজেকে আরও ভালো করে প্রস্তুতও করে নিতে পারবেন। আশা করি ফেসবুক শপস বিশ্বব্যাপী অনেক বিস্তৃত হবে।

সারাদিন/২০মে/ আরটিএস