রবি’র নতুন বিনিয়োগ অংশীদার অপারেটর ভারতী এয়ারটেল

দেশের মোবাইল ফোন অপারেটর রবিকে ছেড়ে যাচ্ছে তার বিনিয়োগ অংশীদার জাপানের এনটিটি ডোকোমো। জানা যায়, রবিতে থাকা ডোকোমোর অংশ (৬ দশমিক ৩ শতাংশ) কিনে নিচ্ছে ভারতের মোবাইল ফোন অপারেটর ভারতী এয়ারটেল।

এরই মধ্যে বিষয়টির জন্য অনুমোদন দিয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। বিষয়টি চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য সংস্থাটি ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগে ফাইল পাঠিয়েছে বলে জানা গেছে।

রবি আজিয়াটা লিমিটেড সূত্রে এ তথ্য জানা যায়, রবি আজিয়াটায় এনটিটি ডোকোমোর যে শেয়ার রয়েছে তা ভারতী এয়ারটেলের কাছে ট্রান্সফার করা হচ্ছে।

‘এ ট্রান্সফার চূড়ান্ত অনুমোদন পেলে রবি আজিয়াটা লিমিটেডে ভারতী এয়ারটেলের শেয়ারের পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়ে ৩১.৩ শতাংশ হবে। এয়ারটেলের রবিতে শেয়ার বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত শীর্ষস্থানীয় ডিজিটাল কোম্পানি হিসেবে আমাদের প্রতি তাদের আস্থার প্রতিফলন এবং দীর্ঘমেয়াদে বাংলাদেশের অর্থনীতির জন্য ইতোবাচক একটি সিদ্ধান্ত।’

জানতে চাইলে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা বলেন, আমার কাছে বিষয়টি (ফাইল) এখনও আসেনি। দেশের পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, অফিস বন্ধ। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হোক।

রবির সূত্রে জানা যায়, এনটিটি ডোকোমো বাংলাদেশে আসে ২০০৮ সালে। সে সময়ে তারা একটেলের (রবির আগের নাম) ৩০ শতাংশ শেয়ার কিনে নেয় ৩৫০ মিলিয়ন ডলারের বিনিময়ে। ২০১৩ সালে জাপানের ডোকোমো তাদের শেয়ার ৮ শতাংশে নামিয়ে আনে। কিন্তু ২০১৬ সালে রবি ও এয়ারটেল একীভূত হলে মূল্যায়িত হয়ে এনটিটি ডোকোমোর শেয়ারের পরিমাণ দাঁড়ায় ৬ দশমিক ৩ শতাংশে। এ শেয়ার ডোকোমো বিক্রি করে দিচ্ছে ভারতী এয়ারটেলের কাছে। ডোকোমোর শেয়ার কিনে নেওয়ার ফলে রবিতে ভারতী এয়ারটেলের শেয়ার হবে ৩১ দশমিক ৩ শতাংশ। অবশিষ্ট ৬৮ দশমিক ৭০ শতাংশের মালিকানা থাকছে রবি আজিয়াটার হাতেই।

Nagad

এ বিষয়ে রবির চিফ করপোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অফিসার সাহেদ আলম বলেন, রবি আজিয়াটায় এনটিটি ডোকোমোর যে শেয়ার রয়েছে তা ভারতী এয়ারটেলের কাছে ট্রান্সফারের বিষয়ে বিটিআরসি অনুমোদন দিয়েছে বলে আমরা জেনেছি। বর্তমানে তা মন্ত্রণালয়ের (ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ) অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে।

সারাদিন/১৯ এপ্রিল